আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১ ● ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১

নীলফামারীতে রেললাইনে বসে মোবাইলে গেম খেলতে গিয়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর ২০২১, দুপুর ০১:৩০

স্টাফ রিপোর্টার,নীলফামারী॥ নীলফামারীতে রেললাইনের উপর বসে মোবাইল গেমস খেলতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে প্রাণ গেল ইয়াছিন আলী (১৫) নামে এক নবম শ্রেনীর ছাত্রের। আজ মঙ্গলবার(১২ অক্টোবর/২০২১) সকাল ৯টার দিকে নীলফামারী রেল স্টেশন থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দুই কিলোমিটার উত্তরে পলাশবাড়ি রেলঘুন্টি এলাকার খুলনা গামী আন্তঃনগর রূপসা ট্রেনে কাটাপড়ে তার মৃত্যু হয়। ইয়াছিন সদর উপজেলার পলাশবাড়ি ইউনিয়নের আরাজি ইটাখোলা গ্রামের গ্রামের জহুর আলী ছেলে এবং পলাশবাড়ি পরশমনি দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইয়াছিন আলীর বাবা মা ও অপর দুই ভাই ঢাকায় থাকে। একমাত্র ইয়াছিন নীলফামারীতে তার দাদা হাজ্বী হোসেন আলীর বাড়িতে থাকে। সে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তো। ফজরের নামাজ শেষে ইয়াছিন প্রাইভেট পড়তে যায়। প্রাইভেট শেষে সে সকাল সারে আটটার দিকে বাড়ির পাশে রেললাইন হওয়ায় রেল লাইনের উপর বসে মোবাইলে গেমস খেলছিলো। ওই সময় চিলাহাটি-ডোমার হয়ে খুলনাগামী আন্তঃনগর রূপসা ট্রেন নীলফামারী আসছিল। ইয়াছিনের কানে ছিল হেডফোন। ওই সময় সে ট্রেনে কাটা পরে মারা যায়। এলাকাবাসীর অভিযোগ রেললাইনের ওই স্থানটি তরুণ বয়সের ছেলেদের “মোবাইল গেমস জোন” নামে পরিচিত। সকাল বিকাল এমন কি রাতেও লাইনের উপর সারি করে বসে মোবাইল গেমসে মেতে উঠে স্থানীয় তরুণরা। এর আগে রেললাইনে বসে আড্ডা দিতে নিষেধ করেও কাজ হয়নি। যার জন্য অকালে ঝরে গেল একটি প্রাণ। নীলফামারীর সৈয়দপুর জিআরপি থানার ওসি আব্দুর রহমান ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসীর কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মন্তব্য করুন


Link copied