আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১ ● ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১

রংপুরের দুই পুত্রবধূ এখন রাষ্ট্রের শীর্ষ পদে

শনিবার, ১১ জানুয়ারী ২০১৪, দুপুর ১২:১০

ডেস্ক: বাংলাদেশের রাষ্ট্র ক্ষমতা এখন রংপুরের দুই পুত্রবধূর নিয়ন্ত্রণে। এক পুত্রবধূ শেখ হাসিনা নবম সংসদের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। দশম জাতীয় সংসদেও তিনি প্রধানমন্ত্রী হবেন। ইতোমধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল আওয়ামী লীগের এমপিরা তাকে সংসদীয় দলের নেতা নির্বাচিত করেছেন। এই সংসদে বিরোধী দলীয় নেত্রী হচ্ছেন বেগম রওশন এরশাদ। রাষ্ট্রের শীর্ষ পদে দুই পুত্রবধূ পাওয়ায় উত্ফুল্ল রংপুরবাসি। প্রধানমন্ত্রী এবং বিরোধী দলীয় নেত্রী পাওয়ার সৌভাগ্য অতীতে কোনো জেলাবাসীর হয়নি। সেদিক থেকে রংপুরের মানুষ নিজেদের বড় ভাগ্যবান করছেন। তারা মনে করছেন দুই পুত্রবধূর কারণে রংপুরবাসির দীর্ঘদিনের দাবিগুলো এবার সহজেই বাস্তবায়িত হবে। বিশষ্টি পরমাণু বিজ্ঞানী প্রয়াত ড. এম ওয়াজেদ মিয়া রংপুরের কৃতি সন্তান। বাড়ি পীরগঞ্জ উপজেলার ফতেপুর গ্রামে। তার সহধর্মীনি শেখ হাসিনা নবম ও দশম সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৬(পীরগঞ্জ) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। রংপুরের আরেক ছাওয়াল সাবেক রাষ্ট্রপতি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সহধর্মীনি বেগম রওশন এরশাদ। গত নির্বাচনে এরশাদের ছেড়ে দেওয়া রংপুর-৩(সদর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। দশম সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে জাতীয় পার্টির সংসদীয় দলের নেতা মনোনীত হয়েছেন। গত নির্বাচনে শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর ২০১১ সালে ৮ জানুয়ারী রংপুরে প্রথম সফরে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রংপুরের উন্নয়নের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়ে ২৬টি প্রতিশ্রুতি দেন। এরমধ্যে রংপুর বিভাগ, সিটি করপোরেশন করার পাশাপাশি রংপুর নগরীর ১৬ কিলোমিটার সড়ককে চারলেনে উন্নীত করাসহ ১০টি প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন করেছেন। নির্মাণ কাজ চলছে দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতুর। তার নির্বাচনী এলাকায় পীরগঞ্জ ইউনিয়নকে পৌরসভায় উন্নীত করার পাশাপাশি সেখানে মেরিন একাডেমির কাজ চলছে। বেগম রোকেয়ার জন্মস্থান পারাবন্দে মহিলা ক্যাডেট কলেজ, পূরুষ ও মহিলাদেন জন্য দুটি আন্তর্জাতিকমানের স্টেডিয়াম, বিভাগীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল, রংপুর টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট, ফলিত পুষ্টি ও মানব সম্পদ উন্নয়ন বোর্ড, রংপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, আইটি ভিলেজ এবং কৃষিভিত্তিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা, রংপুর টিভি উপকেন্দ্রকে পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রে এবং রংপুর বেতার কেন্দ্রকে ১০০ কিলোওয়াট ক্ষমতায় উন্নীত করারসহ ১৬টি প্রতিশ্রুতি এখনও বাস্তবায়ন হয়নি। আওয়ামী লীগ ৯৬ সালে সরকার গঠনের পর রংপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু করে। টাকা বরাদ্দ দিয়ে নির্মাণ কাজের প্রক্রিয়াও শুরু করা হয়। পরবর্তীতে চারদলীয় জোট সরকার গঠনের পর এই প্রকল্পটি বাতিল করে। রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বলেন, আমাদের দুই পুত্রবধূ রাষ্ট্রের শীর্ষ পদে যাওয়ায় নিজেদের ভাগ্যবান মনে করছি। আশা করছি প্রধানমন্ত্রী তার প্রতিশ্রুতিগুলো বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদকে সঙ্গে নিয়ে বাস্তবায়ন করবেন। বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. তুহিন ওয়াদুদ মনে করেন, রংপুরের ইতিহাস বঞ্চিত হওয়ার ইতিহাস। রংপুরের দুই পুত্রবধূ মিলে এবার বঞ্চিত হওয়ার খাদ পূরণ করবেন।

বেগম রওশন এরশাদ বলেন, এবার সুযোগ এসেছে। দুই পুত্রবধূ মিলে রংপুরকে একটি মডেল রংপুর হিসেবে গড়ে তোলা হবে। ক্রেডিট: শাহজাদা মিয়া

মন্তব্য করুন


Link copied