আর্কাইভ  রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ● ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১

শীতের দোহাই দিয়ে রংপুরে চালের দাম বৃদ্ধি

মঙ্গলবার, ১ জানুয়ারী ২০১৩, বিকাল ০৬:০৬

রংপুর সিটি বাজারসহ আশপাশের বাজারগুলো ঘুরে দেখা গেছে পুরাতন বি আর -২৮ চাল প্রতি বস্তায় ২ দিন আগেও বিক্রি হতো ২ হাজার ২০০ টাকায়। সেই চাল এখন বাজারে বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার ৬০০ থেকে ২ হাজার ৮০০ টাকায়। পুরাতন বি আর -২৯ চালের বস্তা বিক্রি ২ হাজার ২০০ টাকা। এখন তা বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার ৪০০ টাকায়। মিনিকেট ৫০ কেজি বস্তার চাল এক হাজার ৬০০ থেকে বেড়ে এক হাজার ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৫০ কেজি বাসমতি চালের বস্তা ১ হাজার ৬৫০ টাকা থেকে বেড়ে ১ হাজার ৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৮৪ কেজি বস্তার বি আর-১১ বস্তাপ্রতি ১ হাজার ৭৫০ টাকা থেকে বেড়ে এক হাজার ৯০০ টাকা হয়েছে।

চাল ব্যবসায়ীরা জানান, আকাশ মেঘলা ও শীত থাকায় চাতাল মালিকারা চাল সরবরাহ করতে না পারায় চালের বাজার বেড়ে গেছে। তবে এ কথা মানতে নারাজ খুচরা চাল বিক্রেতারা। তারা বলছেন চাল আছে কিস্তু মজুদদারেরা চাল সরবরাহ করছে না। চাল ব্যবসায়ীরা বলেন, কয়েকদিন আগে আমরা যে চাল বিক্রি করতাম ২ হাজার টাকায় এখন একই দামেই কিনতে হচ্ছে। কারণ আড়তদারদেও ঘরে বস্তার পর বস্তা চাল পড়ে আছে কিন্তু তারা চাল নেই বলে আমাদের ফেরত দিচ্ছে।

আরেক খুচরা ব্যবসায়ী জানান, আড়াতদারদের ঘরে প্রচুর চাল আছে। তার বেশি লাভের আশায় বিক্রি করছে না। রংপুর সিটি বাজারের চাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মকসুদার রহমান বলেন ঘন কুয়াশা ও শৈত্যপ্রবাহের কারণে চালের সরবরাহ কম। চাতালগুলো চালু না থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

মন্তব্য করুন


Link copied