আর্কাইভ  রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ● ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১

৯০ বছরের বৃদ্ধের সাথে ১৫ বছরের কিশোরীর বিয়ে

মঙ্গলবার, ৮ জানুয়ারী ২০১৩, দুপুর ০২:২৩

দুবাইতে বিশাল অঙ্কের যৌতুক দিয়ে ১৫ বছরের এক কিশোরীকে বিয়ে করেছেন সৌদি আরবের ৯০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ। এ ঘটনায় মানবাধিকার ও সামাজিক গণমাধ্যমের কর্মীরা নিন্দা জানিয়েছেন। নিন্দার ঝড় উঠেছে বিশ্বজুড়ে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারেও চলেছে তীব্র নিন্দা ও সমালোচনা। খবর পিটিআইয়ের। বিয়ের পর ভীত কিশোরীটি দুই দিন ঘরের দরজা বন্ধ করে রেখেছিল। এ সময় স্বামী তার দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন। একফাঁকে পালিয়ে নিজের বাড়িতে মা-বাবার কাছে ফিরে যায় মেয়েটি। তবে মেয়েটির স্বামী ৯০ বছরের বৃদ্ধ দাবি করেছেন, এই বিয়ে সঠিক ও বৈধ। তিনি বলেন, মেয়েটিকে বিয়ে করার বিনিময়ে তার বাবা-মাকে ১৭ হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার দিয়েছেন তিনি। মেয়েটির বাবা একজন ইয়েমেনি এবং মা সৌদি। বৃদ্ধ স্বামীর দাবি, হয় তাঁকে যৌতুকের টাকা ফেরত দিতে হবে, নয়তো কিশোরী বউকে ফিরিয়ে দিতে হবে। এ ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে মানবাধিকার সংস্থা ও মানবাধিকারকর্মীদের মধ্যে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারও ছিল সমালোচনায় মুখর।

সৌদি ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন ফর হিউম্যান রাইটসের সদস্য সুহায়লা জেইন এল আবেদিন বলেন, যত দ্রুত সম্ভব মেয়েটিকে এই দুর্ঘটনা থেকে বাঁচাতে হবে। এল আবেদিন বলেন, ইসলামে বিয়ে সমঝোতার ভিত্তিতে হওয়া উচিত। কোনো মেয়ে স্বামীর ভয়ে নিজেকে ঘরে বন্ধ করে রাখবে, এমন বিয়ে কখনোই হওয়া উচিত নয়। তিনি এই ঘটনার জন্য মেয়েটির মা-বাবাকেও দায়ী করেন। তাঁদের প্রশ্ন, ‘কেন তাঁরা মেয়েটিকে তাঁর দাদার বয়সী লোকের সঙ্গে বিয়ে দিলেন?’

মন্তব্য করুন


Link copied