Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০ :: ১৭ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ৭ : ৫৫ পুর্বাহ্ন
Home / টপ নিউজ / রংপুর বিভাগে শীতকালীন শাকসবজির বাম্পা‌র ফলন

রংপুর বিভাগে শীতকালীন শাকসবজির বাম্পা‌র ফলন

সেন্ট্রাল ডেস্ক: রংপুর বিভাগের ৮ জেলার ৫৮টি উপজেলাতে এবার প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকার শীতকালীন শাকসবজির চাষ হয়েছে । শীতকালীন শাকসবজির বাম্পা‌র ফলন হওয়ায় বাজারও চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। বাজারে শীতকালীন শাকসবজির ব্যাপক চাহিদা থাকা ও বাজারদর ভালো পাওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে। ফলে বোরো মৌসুমে আর্থিক সংকটের হাত থেকে রেহাই পেয়েছে অনেকেই।

বৃহত্তর রংপুর-দিনাজপুর অঞ্চলের ৮ জেলায় চলতি মৌসুমে ৫১ হাজার হেক্টর জমিতে সবজি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হলেও আবহাওয়া অনুকূল থাকায় উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসেব মতে, হেক্টর প্রতি গড় উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছিল ১২ মেট্রিক টন। সেই হিসেবে চলতি মৌসুমে ৮ জেলায় ৬ লাখ ১২ হাজার মেট্রিক টন সবজি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়। যার সর্বনিু বাজার মূল্য দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭শ ৭৫ কোটি টাকার উপরে।

রংপুর-দিনাজপুর অঞ্চলের মধ্যে রংপুরের মিঠাপুকুর, পীরগঞ্জ, বদরগঞ্জ, পীরগাছা উপজেলা, নীলফামারী সদর, জলঢাকা, ডিমলা, কুড়িগ্রাম সদর, গাইবান্ধা সদর, গোবিন্দগঞ্জ, পলাশবাড়ি, দিনাজপুর সদর, কাহারোলসহ বিভিন্ন স্থানের শত শত সবজি চাষি প্রতিদিন রিকসা ভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহনে সবজি নিয়ে স্থানীয় পাইকারী হাট-বাজারগুলোতে ভীড় করছেন।

ওইসব বাজার থেকে পাইকারী ব্যবসায়ীরা তা ক্রয় করে ট্রাক বোঝাই সবজি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠাচেছ। এসব জেলা থেকে প্রতিদিন প্রায় কোটি টাকার শীতকালীন শাকসবজি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হচ্ছ‌ে।

রংপুরের অতিরিক্ত কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, বৃহত্তর রংপুর-দিনাজপুর অঞ্চলের ৮ জেলায় চলতি মৌসুমে ৫১ হাজার হেক্টর জমিতে মুলা, টমেটো, ফুলকপি, বাঁধাকপি, বেগুন, সীমসহ বিভিন্ন শীতকালীন সবজি চাষাবাদ করা হয়েছে।

এর মধ্যে রংপুরে ৮ হাজার হেক্টর, কুড়িগ্রামে ৬ হাজার হেক্টর, লালমনিরহাটে ৫ হাজার হেক্টর, গাইবান্ধায় ৬ হাজার হেক্টর, নীলফামারীতে ৬ হাজার হেক্টর, দিনাজপুরে ১০ হাজার হেক্টর, পঞ্চগড়ে ৪ হাজার হেক্টর ও ঠাকুরগাঁওয়ে ৬ হাজার হেক্টর জমিতে শীতকালীন শাকসবজি আবাদ করা হয়েছে। হেক্টর প্রতি গড় উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে ১২ মেট্রিক টন।

সেই হিসেবে চলতি মৌসুমে ৮ জেলায় ৬ লাখ ১২ হাজার মেট্রিক টন সবজি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও আবহাওয়া অনুকূল থাকায় উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। উৎপাদিত সবজির সর্বনিু বাজার মূল্য ৭শ ৬৫ কোটি টাকার উপরে দাঁড়িয়েছে।

 ৮ জেলা থেকে প্রতিদিন গড়ে শতাধিক ট্রাক যোগে বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হচ্ছে‌ ওইসব শাকসবজি। দেশের অন্যান্য স্থানে এ অঞ্চলের সবজির বেশ চাহিদা রয়েছে। এছাড়া অন্যান্য জেলাগুলোর তুলনায় এখানে দামও কিছুটা কম। ফলে তারা এখান থেকে সবজি ক্রয় করে ট্রাক যোগে তা ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে পাঠিয়ে থাকে।

এছাড়া সবজির বাজারকে ঘিরে একটি মধ্যস্বত্ব ভোগী গড়ে উঠায় অনেক কৃষক সঠিক বাজার মূল্য প্রাপ্তিতে বঞ্চিত হচ্ছ‌েন। সবজি সংরক্ষনাগারসহ সবজি চাষে সরকারি পর্যাপ্ত সাহায্য-সহযোগিতা না থাকার পরও এ অঞ্চলের সবজি চাষিরা এবার ৫ হাজার কোটি টাকার উপড়ে সবজির উৎপাদন করে দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখতে বিশাল ভূমিকা রেখেছেন।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful