Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০ :: ১৭ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ১ : ৫৭ পুর্বাহ্ন
Home / লালমনিরহাট / কালীগঞ্জে তিন শিশু নিখোঁজ এলাকায় আতঙ্ক

কালীগঞ্জে তিন শিশু নিখোঁজ এলাকায় আতঙ্ক

আহমেদ সিপন কালীগঞ্জ প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় গত দুই দিনে তিন শিশু নিখোঁজ হওয়ার এলাকা জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পাচারকারী চক্রের সদস্যরা পাচারের উদ্দেশ্যে শিশুদেরকে ধরে নিয়ে গেছে বলে পরিবারের সদস্যরা আশঙ্কা করছেন।
এলাকাবাসী জানায়, কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা ইউনিয়নের নিথক গ্রামের শফিকুল ইসলামের পুত্র শাহ আলম (৪) মঙ্গলবার বিকেলে বাড়ির কাছেই খেলা করছিলো। এ সময় সে নিখোঁজ হয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি এবং এলাকাজুড়ে মাইকিং করেও তার কোন সন্ধান মেলেনি। ছেলে হারিয়ে পরিবারের সদস্যরা এখন পাগলপ্রায়।
শফিকুল বলেন, “থানায় একটি জিডি করেছি। আর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ নিচ্ছি।” তার ধারণা পাচারকারী চক্রের সদস্যরা তার শিশু সন্তানকে ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে ধরে নিয়ে গেছে। চলবলা ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু জানান, শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার খবর তিনি শুনেছেন।
এদিকে, গত বুধবার বিকেলে চন্দ্রপুর ইউপি’র পানি খাওয়ার ঘাট গ্রামের আলী আকবরের শিশু পুত্র নিশান (৪) নিখোঁজ হয়েছে। আত্মীয় স্বজনসহ সব জায়গায় সন্ধান নেওয়ার পর শিশুটিকে না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা চাপারহাট বাজারে মাইকিং করেন। একদিন পার হয়ে গেলেও তার কোন সন্ধান মেলেনি। শিশুটির মা জানান, তার বাড়ি থেকে ভারতের দূরত্ব এক কিলোমিটার। দুই বছর আগে তার এলাকা থেকে এক শিশু নিখোঁজ হলেও আজও তার সন্ধান মেলেনি। তাকে পাচারকারীরা ভারতে পাচার করেছে বলে তারা সন্দেহ করেন। তার ছেলের ক্ষেত্রেও এমনটি ঘটতে পারে।
চন্দ্রপুর ইউপি’ সদস্য হাফিজুর রহমান জানান, চন্দ্রপুর থেকে এক বছর আগে দুই কিশোর নিখোঁজ হয়। পরে জানা যায়, স্থানীয় পাচারকারী চক্রের সদস্যরা তাদেরকে ভারতে পাচার করেছে। বিগত ২০১২ সালের জুনে চন্দ্রপুর গ্রামের এক কিশোরকে ধরে নিয়ে যায় পাচারকারী সদস্যরা। পরে, সুকৌশলে কিশোরটি পালিয়ে আসে। অন্যদিকে, আদিতমারির কাশিয়াবাড়ি থেকে এক শিশু নিখোঁজ হওযার খবর পাওয়া গেছে। ওই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের পুত্র হেলালকে (৫) সোমবার বিকেল থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এলাকাবাসীর ধারণা, ছেলেধরা অথবা পাচারকারী চক্রের সদস্যরা শিশুটিকে নিয়ে যেতে পারে। গত তিন দিনের ব্যবধানে তিন শিশু নিখোঁজ হওয়ার খবরে আতঙ্কিত হয়েছে এলাকাবাসী পুরো জেলার মানুষ। তারা বলছেন, “লালমনিরহাট সীমান্তবর্তী জেলা হওয়া পাচারকারী দলের লোকেরা আবারো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।”
এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুজ্জামান জানান, শিশু নিখোঁজের বিষয়টি শুনেছি কিন্তু লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful