Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ৪ : ৪৯ পুর্বাহ্ন
Home / নীলফামারী / নীলফামারীতে ছাত্রদল ও যুবদলের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ভাংচুর

নীলফামারীতে ছাত্রদল ও যুবদলের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ভাংচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা,নীলফামারী ॥ নীলফামারীতে ছাত্রদল ও যুবদলের বিবদমান দুটি গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় মঙ্গলবার দুপুরে হরতালের সমর্থনে বিএনপির একটি মিছিল শহর প্রদক্ষিণ করে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত আলোচনা শেষে দুটি গ্রুপের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বড় মাঠে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করলে বিক্ষুব্ধরা শহরের পুরাতন বাস স্ট্যান্ড এলাকায় গিয়ে আবারো সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় সেখানে জেলা যুবদলের সদস্য মুক্তার হোসেনের ব্যাবসায়ীক অফিস মুক্তার এন্টারপ্রাইজে ভাংচুর চালায়। পুলিশের বাধায় বিক্ষুব্ধরা সরে গেলেও বেলা আড়াইটার দিকে আবারো সেখানে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
এ ব্যাপারে কথা বললে মুক্তার এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী জেলা যুবদলের সদস্য মোঃ মুক্তার হোসেন অভিযোগ করে বলেন, অভ্যন্তরীণ কলহের জের ধরে ছাত্রদলের সাবেক পৌর কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান সরকারের নেতৃত্বে তার সমর্থকরা আমার অফিসে হামলা করে ভাংচুর করেছে। এতে অফিসের আসবাবপত্র টিভিসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল বিনষ্ট করেছে। এ ঘটনায় তিনি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান।
মুঠো ফোনে কথা বললে হাসানুজ্জামান সরকার বলেন, দলীয় কর্মসূচি শেষে বাড়ি ফেরার সময় মুক্তারের নির্দেশে তার সমর্থকরা আমার সমর্থকদের উপর হামলা করে। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তার সমর্থকদের উপর হামলার ঘটনায় তিনিও মামলা করবেন বলেও জানান।
এ ব্যাপারে কথা বললে নীলফামারী সদর থানার ওসি আবু আক্কাস আহম্মেদ বলেন, ছাত্রদল ও যুবদলের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে ৩ দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি , মামলা পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful