Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০ :: ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ১০ : ৫১ অপরাহ্ন
Home / আলোচিত / নামে উদ্বোধন হাতীবান্ধা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন

নামে উদ্বোধন হাতীবান্ধা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন

IMG_20151026_202713 নিয়াজ  আহমেদ সিপন, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:  নামে উদ্ধোধন কাজে তালা বন্ধ।

চলতি বছরের ১৬ই আগষ্ট উদ্ধোধন করেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদ মোতাহার হোসেন। উদ্বোধনের দুই মাস পেরিয়ে গেলেও তালা ঝুলছে হাতীবান্ধা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনে।
লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা উপজেলা থেকে ৫ কিলোমিটার অদূরে নির্মিত হয় হাতীবান্ধা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন। হাতিবান্ধা শহরের ৫ কিলোমিটার দূরে উদ্ধোধন করায় কত টুকু ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনটি কাজে লাগবে তা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষরাই জানেন।
সাপ্তাহ খানেক আগে মদিনা বেকারীতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এসময় স্থানীরা হাতিবান্ধার পার্শ্ববর্তী উপজেলা পাটগ্রাম ও কালীগঞ্জে খবর দিলেও ততক্ষনে মদিনা বেকারী ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। গত মাসে হাতীবান্ধা শহরে বসবাসকারী প্রকৌশলী হায়দার আলীর ভাড়া বাসায় অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এসময় কালীগঞ্জ ও পাটগ্রাম উপজেলার ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর দেয়া হলেও তাদের পৌঁছতে প্রায় ঘন্টা খানেক সময় লেগে যায়। কিন্তু ততক্ষণে ঘরের আসবাবপত্রসহ সবকিছুই আগুনে পুড়ে যায়। তবে আশপাশের লোকজনের সহায়তায় ঘন্টাব্যাপি পানি ছিঁটিয়ে বড় ধরনের বিপদের হাত থেকে রক্ষা পায় প্রতিবেশীদের বাড়ি ঘর। এরকম অনেক অগ্নিকান্ডের ঘটনা হয়। কোন প্রকার জরুরী সেবা পাচ্ছেন না বলে জানান স্থানীয়রা। অনেকেই বলছেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার কারণে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি উদ্বোধনের দু‘মাস পরেও চালু হচ্ছে না।
উদ্ধোধনের দিনে এলাকাবাসী অনেকটা খুশি, এবার উপজেলায় অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে আর প¦ার্শবর্তী উপজেলা পাটগ্রাম বা কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপর নির্ভর করে তাদের সম্পদ আগুনে পুরে ছাই হতে দেখবে না। কিন্তু উদ্ধোধনের পরেও স্টেশনটি তালাবদ্ধ থাকায় পার্শ্ববর্তী উপজেলার দমকল বাহিনীর উপর নির্ভর করতে হচ্ছে এলাকাবাসীদের। সম্প্রতি হাতীবান্ধা উপজেলা সদরে বেশ কয়েকটি অগ্নিকান্ডের ঘটনাও ঘটেছে। এসব অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে পাশের উপজেলা থেকে দমকল বাহিনী আসতে অপেক্ষকৃত বেশী সময় লেগে যাওয়ার কারণে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে ভুক্তভোগিরা।
ক্ষতিগ্রস্থরা বলেছেন, হাতীবান্ধা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি প্রকৃত অর্থে চালু করলে এতবড় ক্ষতি হতো না তাদের। তাই উপজেলাবাসীদের অগ্নিকান্ডের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষায় দ্রুত ওই ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি চালুর দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে লালমনিরহাট জেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অফিসের কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ বলেন, ‘ওই স্টেশনটি সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদ মোতাহার হোসেন প্রায় দুই মাস আগে উদ্বোধন করলেও গণপূর্ত বিভাগ এখনো অবকাঠামটি হস্তান্তর করেনি”। তবে আগামী ১০/১৫ দিনের মধ্যে ভবনটি হস্তান্তরসহ হাতীবান্ধা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন চালু করা হবে বলে জানান তিনি।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful