Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ১ : ৫৫ অপরাহ্ন
Home / টপ নিউজ / ড. ওয়াজেদ মিয়ার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ড. ওয়াজেদ মিয়ার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী, বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. ওয়াজেদ মিয়ার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ।

২০০৯ সালের এই দিনে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন। ১৯৪২ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ফতেপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে তার জন্ম। মরহুম আব্দুল কাদের মিয়া ও মরহুমা ময়জান নেছার সন্তান ওয়াজেদ মিয়া এলাকা ছাড়াও সারাদেশে ‘সুধা মিয়া’ নামেই সমধিক পরিচিত ছিলেন। পীরগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চক করিম প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তার শিক্ষা জীবন শুরু। ১৯৫৬ সালে রংপুর জেলা স্কুল থেকে ম্যাট্রিক পাশ করে ভর্তি হন রাজশাহী সরকারি কলেজে। সেখান থেকে বিজ্ঞান বিভাগে কৃতিত্বের সঙ্গে এইচএসসি পাশ করেন। ১৯৬১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণীতে তৃতীয় স্থান এবং ১৯৬২ সালে স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণীতে প্রথম স্থান লাভ করেন। তিনি ১৯৬৩-৬৪ শিক্ষাবর্ষে লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজে ‘ডিপ্লোমা অব ইম্পেরিয়াল কলেজ কোর্স’ সম্পন্ন শেষে ১৯৬৭ সালের সেপ্টেম্বরে যুক্তরাজ্যের ডারহাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৬৫ সালে ভারতীয় উপমহাদেশে প্রথম শ্রেণীর এই বিজ্ঞানী তৎকালীন পাকিস্তান আণবিক শক্তি কমিশনে যোগ দিয়ে চাকরি জীবন শুরু করেন। পরে আণবিক শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যানেরও দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

১৯৬৯ সালে ইতালির খ্যাতনামা আন্তর্জাতিক তাত্ত্বিক বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্র তাকে ‘এসোসিয়েটশীপ’ প্রদান করে। ১৯৬৯ সালের নভেম্বর থেকে ৭০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন শহরে ‘ড্যারেসবেরি নিউক্লিয়ার ল্যাবরেটরি’তে পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা করেন। ড. ওয়াজেদ মিয়া ১৯৭৫ সালের ১ অক্টোবর থেকে শুরু করে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত ভারতের আণবিক শক্তি কমিশনের দিল্লির ল্যাবরেটরিতে গবেষণায় নিয়োজিত ছিলেন।

বিজ্ঞানী ড. ওয়াজেদ মিয়া রাজনীতিতেও ছিলেন সক্রিয়। ১৯৬১ সালের প্রথম দিকে ছাত্রলীগে যোগ দেন। এ সময় তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হলের ছাত্র সংসদের ভিপি নির্বাচিত হন। ১৯৬২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তার প্রথম সাক্ষাত হয়। ওই বছরই আইয়ুব বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে গ্রেফতার হন ড. ওয়াজেদ মিয়া। আজন্ম সৎ, সম্পূর্ণ নির্লোভ, নিভৃতচারী ও নিখাদ দেশ্রপ্রমিক এই পরমাণু বিজ্ঞানী ১৯৬৭ সালের ১৭ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে বঙ্গবন্ধুর নৃশংসতম হত্যাকাণ্ডের সময় ড. ওয়াজেদ মিয়া জার্মানিতে ছিলেন। তার সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা থাকায় তারা প্রাণে বেঁচে যান। এই বিজ্ঞানীর দু’সন্তান। বড় ছেলে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত সজীব ওয়াজেদ জয় পেশায় সফটওয়্যার বিজ্ঞানী। ছোট মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল অটিজম নিয়ে দেশ-বিদেশে সুনামের সঙ্গে কাজ করছেন।

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন।

ড. ওয়াজেদ মিয়াকে কখনই ক্ষমতার কাছাকাছি দেখা যায়নি। নির্লোভ, নিরহঙ্কার ও সৎ এই খ্যাতনামা বিজ্ঞানীর চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে পীরগঞ্জের ফতেপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার কবর জেয়ারত, দিনব্যাপী কোরানখানি, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

বিকেলে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম হলরুমে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ আ.ফ.ম রুহুল হক।

এছাড়া, রংপুরে দিনব্যাপী কর্মসূচি নেয়া হয়েছে।

ড. ওয়াজেদ স্মৃতি সংসদ (ডিডব্লিউএসএস) এবং বিভিন্ন সংগঠন দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে দিনব্যাপী বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ৯টায় ড. ওয়াজেদ মিয়ার পৈতৃক নিবাস পীরগঞ্জ উপজেলার ফতেহপুর গ্রামে মরহুমের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও কবর জিয়ারত।
বিকেল ৪টায় রংপুর জেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে মূল আলোচনা সভা, বাদআছর রংপুর কেরামতিয়া জামে মসজিদে মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল।

এ ছাড়া বিভিন্ন মসজিদ, মন্দির, গির্জা ও উপাসনালয়ে ড. ওয়াজেদ মিয়ার আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়, কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হবে।

এদিকে ড. ওয়াজেদ মিয়ার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ড. ওয়াজেদ ফাউন্ডেশন, জেলা পরিষদ, জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ, পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অন্যান্য সংগঠন চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালন করার জন্য দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful