Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ৭ : ১১ পুর্বাহ্ন
Home / আলোচিত / আপনি কি ‘তাকে’ ভালবাসেন?

আপনি কি ‘তাকে’ ভালবাসেন?

উজ্জয়িনী মুখোপাধ্যায়: প্রিয় মানুষটির সঙ্গে কি সত্যিই আপনি সুখে আছেন? ঘ্যানঘ্যানানি প্রেম-বিরহের খেলা খেলে যদি আপনারা ক্লান্ত হয়ে পড়েন, তবে হাতেনাতে ভালবাসা যাচাই করে নিলেই তো হয়! স্বামীর বাড়ি ফিরতে অযথা দেরি করা অথবা স্ত্রীর অকারণ রাগের আড়ালে কি আদৌ লুকিয়ে আছে ভালবাসার কিরণ, জানতে হলে পরখ করে দেখতে পারেন কটা টিপ্স!

খেয়াল করে দেখুন তো, কোনও সুখবর পেলেই কি ‘তাকে’ প্রথম ফোন করে বা ছুটে গিয়ে জানাতে চান আপনি? উত্তরটা যদি হ্যাঁ হয়, তবে ভালবাসা নিয়ে নিঃসন্দেহ হন। যে মানুষটাকে আপনার প্রথম দরকার হয়, তাকে ভালবাসা ছাড়া আবার কী বলবেন?

কাজের চাপে প্রায় পিষে যেতে যেতেই যুগলে একসঙ্গে অনেকটা সময় কাটানোর কথা শুনলেই বেশ প্রেমঘন আবেগে ভেসে যান কি? সে একসঙ্গে সময় কাটানো হোক বা নাই হোক? এই উত্তরটাও হ্যাঁ হলে আর চিন্তা নেই। আপনার মনে রয়েছে হান্ড্রেড পার্সেন্ট লাভ অন্য মানুষটির জন্য! তার সঙ্গে সময় কাটানোটা যখন এত পছন্দের; তখন সেটা ভালবাসা ছাড়া আবার কী!

ছেলে-মেয়ে বা সংসারের হাঁকডাক থেকে কয়েক ঘন্টার এক নিমেষ ছুটকারা পেয়েই ‘ওর’ সঙ্গে অন্তরঙ্গে প্রেম-খেলায় কি চান মত্ত হতে? উত্তরটা হ্যাঁ হলে নিশ্চিন্ত থাকুন, এখনও ফুরিয়ে যায়নি ভালবাসা, এখনও যে তার আঙুল ছুঁলেই বিদ্যুৎ খেলে যায়!

সে কি এখনও আপনাকে আর সকলের থেকে বেশি খুশি রাখতে পারে, হাসাতে পারে অনেকটা যখন তখন? এও ভালবাসারই লক্ষণ; নইলে আপনি তার সঙ্গে এতটা হাসিখুশি আছেন কী করে?

পরস্পরের সঙ্গে অনেকগুলো বছর কাটানোর পরেও কি ‘তার’ চিবুক-উরু-কাঁধ ছেয়ে থাকা মিষ্টি গন্ধে মাতোয়ারা হয় আপনার হৃদয়? হলে প্রেম এখনও আপনাদের ছেড়ে যায়নি; নিশ্চিন্ত থাকুন!

আপনার কাছে তিনি না থাকলে কি আপনি নিজের নির্ধারিত জায়গায় শুয়ে, মিস করেন ওকে? ভুলেও ওর শোয়ার দিকটি দখল করেন না তো? উত্তর হ্যাঁ হলে আর ভাবনা কী; ভালবাসার মানুষকেই তো এতটা প্রাধান্য দেয় আরেকটা মানুষ।

ভাবছেন নিশ্চয়ই, এই ছোট্ট প্রশ্নগুলো কি ভালবাসা যাচাইয়ের সঠিক মাপকাঠি হতে পারে? ‘আসলে এই ধরনের প্রশ্ন আর তার উত্তর তো মানুষের মনটাকেই তুলে ধরে! এরকম প্রশ্ন কাউন্সেলিং-এর সময়েও দরকার হয়, কেননা এই ছোটখাটো ব্যাপারগুলোর মধ্যে দিয়েই বোঝা যায় নিজেকে। তাছাড়া এই প্রশ্নগুলোর আসল উদ্দেশ্য হল, একটা মানুষের আরেকটা মানুষের ওপর নির্ভরতার জায়গাটাকে চিনে নেওয়া; নির্ভরশীল না হলে একটারও উত্তর হ্যাঁ হয় না’, হাসতে হাসতে জানাচ্ছেন মনোবিদ অভিরুচি বন্দ্যোপাধ্যায়।

আর চলতি সময়ে ভেসে থাকা অন্যান্য মানুষেরা কী বলছেন এই সমীক্ষা নিয়ে? নিউ আলিপুরের বাসিন্দা প্রেসিডেন্সির ছাত্রী জোয়া এ ব্যাপারে স্পষ্টাস্পষ্টি জানালেন নিজের মতামত, ‘অনেক সময়ই খারাপ সম্পর্ক বা ভাঙনের মুখের দাঁড়িয়ে থাকা সম্পর্কগুলোর কথা আমরা বলে থাকি। এবং শুধু বলেই খালাস হই না, চোখের সামনে ধূলিসাৎ হয়ে যাওয়া ভাল দাম্পত্যের কোনও কাহিনি শুনলে ব্যথিতও হই। সেই ব্যাপারটাই যদি নিজের সঙ্গে হয়, তাহলে ভাল লাগে কি? তাই এরকম কিছু সহজ অথচ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের জবাব যদি মেলে এরকম সমীক্ষায়, মন্দ কী! এটা তো ঠিক, প্রশ্নের জবাব থেকেই কিছুটা আঁচ করা যাচ্ছে নিজের মতিগতি’!

অন্য দিকে একটি বেসরকারি সংস্থার ম্যানেজার ঋজু বন্দ্যোপাধ্যায়-ও সহমত পোষণ করছেন সমীক্ষাটির পক্ষেই! ‘এটা তো ঠিক, যে সব সময় নিজের মন বুঝে ওঠা যায় না। আজ কাউকে ভাল লাগছে, কাল হয়তো অন্য কাউকে- বুঝব কী করে যে, এর মধ্যে কোন সম্পর্কটা স্থায়ী হবে? সেটা তখনই বোঝা যাবে, যখন জানতে পারব, কার সঙ্গে থাকতে ভাল লাগছে! আমি অন্তত সমীক্ষা থেকে সেটার জবাব পেয়ে গেছি’, দুষ্টুমির হাসি দিয়ে অকপট স্বীকারোক্তি করলেন ঋজু।

তাহলে আর কী! এবার প্রশ্ন করুন নিজেকেই- কেমন আছেন আপনারা? ভাল তো?

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful