আর্কাইভ  বৃহস্পতিবার ● ৬ অক্টোবর ২০২২ ● ২১ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   বৃহস্পতিবার ● ৬ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: দেশের মানুষ আজ নরকে বাস করছে-জিএম কাদের       গাইবান্ধায় লোকালয়ে হনুমান, উৎসুক জনতার ভিড়       নভেম্বরে বন্ধ হবে ৩০ লাখ মোবাইল সিম       কাঁটাতারের বেড়া ভালোবাসা ভাগ করতে পারেনি       করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৪৯      

আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ, অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুর, গুলিবিদ্ধ ১,আহত ২০

শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, বিকাল ০৬:৫৮

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ- ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়ায় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অগ্নিসংযোগ, ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে৷ এতে নয়টি মোটরসাইকেল ও বিএনপি অফিসের সামনে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এতে একজন গুলিবিদ্ধ ও ২০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে একই দিনে রুহিয়া থানা বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি ও থানা মহিলা আওয়ামী লীগের কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী দৌপ্রদী আগারওয়ালা বলেন,পূর্ব ঘোষিত আজ থানা মহিলা আওয়ামী লীগের বিএনপি-জামাতের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ছিল। আমাদের প্রোগ্রাম শুরু না হতেই তারা আমাদের সাংসদের বাড়িতে হামলা করে। পরে আমাদের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। 

এ বিষয়ে জেলা যুবদলের সভাপতি আবু নুর চৌধুরী বলেন, আমাদের এটি পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি ছিল৷ এর আগে ৩০ তারিখে আমাদের প্রোগ্রাম টি ছিল। সেটাতে প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করেন৷ আর আজকে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে আমরা প্রোগ্রামটি করি। আমাদের প্রোগ্রামকে বান্চাল করার জন্য একই দিনে আওয়ামী লীগ কর্মসূচি ডাক দেয়। প্রশাসন আমাদের দুপুর দুইটা থেকে বিকাল সাড়ে চারটা পর্যন্ত সময় দেয়। আমরা যথাসময়ে প্রোগ্রাম শুরু ও শেষ করি৷ প্রোগ্রামে আসার সময় আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর তারা হামলা করেন। এমনকি প্রোগ্রাম শেষ হবার আমাদের অফিসের সামনে অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুর করেন। এখন পর্যন্ত ১৫-২০ জন,আমাদের নেতাকর্মী আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন৷ এতে আমাদের পাঁচটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। 

রুহিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সোহেল রানা বলেন, দুটি দল একই সময় সভা ডেকেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুটি দলকে দুটি সময়ের কথা বলা হয়েছিল। কয়েকটি বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। 

 

মন্তব্য করুন


Link copied