আর্কাইভ  শুক্রবার ● ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   শুক্রবার ● ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রুপালি পর্দা- প্রেম, বিয়ে, সন্তান কেন এত অসম্মান?       ঠোঁটের কালচে দাগ দূর হোক, ফিরিয়ে আনুন গোলাপি ভাব       বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে ১০ দিন সকল প্রকার আমদানি রফতানি বন্ধ       বিদেশিদের কাছে বিএনপির অপশাসনের চিত্র তুলে ধরুন: প্রধানমন্ত্রী       পূজাকে বিয়ের প্রস্তাব পাঠিয়েছেন শাকিব      

কালীগঞ্জে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ

শুক্রবার, ১০ জুন ২০২২, রাত ০৮:৪৩

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ থানায় অভিযোগপত্র দেয়ার পর থেকে হুমকি দিচ্ছেন শ্যামলী বেগম(৩৮) নামে এক গৃহবধূকে। তাই হাসপাতালে শুয়ে চোখের পানি মুছে তাদের বিচার দাবি করেন তিনি। এ কারণে তিনি বলেছেন, ‘বিচার না পেলে আত্মহত্যা করব।

শুক্রবার (১০জুন) বিকেলে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি থাকা অবস্থায় চোখের পানি মুছতে মুছতে এ কথা বলেন। এর আগে বৃহস্পতিবার(৯ জুন) রাতে এ ঘটনায় বিচার দাবি করে কালীগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিত গৃহবধূ।

গৃহবধূ শ্যামলী বেগম উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়নের বৈরাতী এলাকার আবুল হোসেনের স্ত্রী।

অভিযোগে প্রকাশ, প্রতিবন্ধী সন্তানসহ বাড়িতে প্রতিদিনের মত গত ৬জুন রাতে ঘুমিয়ে পড়েন গৃহবধূ শ্যামলী বেগম। রাতে প্রকৃতির ডাকা সাড়া দিতে ঘরের বাহিরে বের হন গৃহবধূ। এ সময় ওঁতপেতে থাকা তার প্রতিবেশী মৃত জমির আলীর ছেলে একরামুল হক(৪৮) তার মুখ চেপে ধরে পাশের বাঁশ বাগানে নিয়ে বিবস্ত্র করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। গৃহবধূ চেষ্টা করে মুখ খুলে চিৎকার দিলে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে একরামুল হক গলা চেপে গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টা করে। তার আত্নচিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে লম্পট একরামুল পালিয়ে যান।

পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় বাঁশ বাগান থেকে গৃহবধূকে উদ্ধার করে রাতেই কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় গৃহবধূ শ্যামলী বেগম বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে কালীগঞ্জ থানায় একরামুলের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

শ্যামলী বেগমের স্বামী আবুল হোসেন বলেন, বিভিন্ন সময় কাকজের সন্ধানে বাহিরে যাই আমি। প্রায় আমার স্ত্রী একরামুলের বিষয় বলে। এরপর একরামুল আরো আমাদের ভয়ভিতি দেখানো শুরু করেন। তাই আমি এই লম্পটের বিচার চাই।

কালীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) গোলাম রসুল বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন


Link copied