আর্কাইভ  শুক্রবার ● ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   শুক্রবার ● ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রুপালি পর্দা- প্রেম, বিয়ে, সন্তান কেন এত অসম্মান?       ঠোঁটের কালচে দাগ দূর হোক, ফিরিয়ে আনুন গোলাপি ভাব       বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে ১০ দিন সকল প্রকার আমদানি রফতানি বন্ধ       বিদেশিদের কাছে বিএনপির অপশাসনের চিত্র তুলে ধরুন: প্রধানমন্ত্রী       পূজাকে বিয়ের প্রস্তাব পাঠিয়েছেন শাকিব      

গাইবান্ধায় মেম্বার প্রার্থীর সমর্থককে গলা কেটে হত্যা

বুধবার, ৫ জানুয়ারী ২০২২, বিকাল ০৬:৫১

গাইবান্ধা: গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুম্মারবাড়ি ইউনিয়নের একটি ভোট কেন্দ্রের বাইরে আবু তাহের (৩৮) নামে এক মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকের ওপর হামলাসহ গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী রাসেল আহমেদের (ফ্যান) প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের হামলার শিকার হন বলে অভিযোগ স্বজনদের।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) বিকেল পৌনে ৩টার দিকে সাঘাটা উপজেলার জুম্মাবাড়ি ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের জুম্মাবাড়ি আদর্শ কলেজ কেন্দ্রের বাইরে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আবু তাহের জুম্মারবাড়ি ইউনিয়নের মামুদপুর গ্রামের মো. ওমর আলীর ছেলে। আবু তাহের মেম্বার প্রার্থী আইজল মিয়ার (টিউবওয়েল) প্রতীকের সমর্থক ছিলেন।  

নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, ভোটগ্রহণ চলাকালে বিকেলে পৌনে ৩টার দিকে কেন্দ্রের বাহিরে মেম্বর প্রার্থী আইজল মিয়ার (টিউবওয়েল) সমর্থক আবু তাহেরের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বর প্রার্থী রাসেল আহমেদের (বৈদ্যুতিক ফ্যান) কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আবু তাহেরকে একা পেয়ে রাসেলের কর্মী-সমর্থকরা ধারালো হাসুয়া দিয়ে তার গলা কেটে ফেলে।  রাসেলকে উদ্ধার করে সাঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আবু তাহেরের স্বজনদের অভিযোগ, পরিকল্পিতভাবে প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী রাসেল আহম্মেদের কর্মী-সমর্থকরা আবু তাহেরের ওপর হামলা চালায়। এরপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার গলা কেটে হত্যা করে। এ হত্যার ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করাসহ ফাঁসির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঘটনাস্থলে থাকা গাইবান্ধার সহকারী পুলিশ সুপার বি-সার্কেল মো. ইলিয়াস জিকো জানান, ঘটনার পর এলাকায় অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।  

মন্তব্য করুন


Link copied