আর্কাইভ  রবিবার ● ৪ ডিসেম্বর ২০২২ ● ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
আর্কাইভ   রবিবার ● ৪ ডিসেম্বর ২০২২
 width=

 

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

রংপুর সিটি নির্বাচন ; ২৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী নেছার আহমেদ এর ইশতেহার ঘোষণা

রংপুর সিটি নির্বাচন ; ২৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী নেছার আহমেদ এর ইশতেহার ঘোষণা

 width=
শিরোনাম: স্বর্ণের দামে রেকর্ড       রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার       পঞ্চগড়ে মাটিবাহী ট্রাক্টর চাপায় শিশুর মৃত্যু       কোতয়ালী থানার এসআই হাবীবের অনন্য স্বীকৃতি অর্জন       নির্বাচন কমিশন যেন একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করে- বদিউল আলম মজুমদার      
 width=

গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীসহ দু’জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, দুপুর ০৪:৩৩

খায়রুল ইসলাম, গাইবান্ধা থেকে: গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার কামালেরপাড়া গ্রামে দ্বিতীয় স্ত্রী শিউলী আকতার পারভীন (২৪) কে হত্যার দায়ে স্বামী সাইফুল ইসলামসহ দু’জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গাইবান্ধা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা আদালতের বিচারক মো. ফেরদৌস ওয়াহিদ এ রায় দেন। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলার অপর ৩ আসামীকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়। 
মামলার সুত্রে জানা গেছে, সাঘাটা উপজেলার ওসমানেরপাড়া গ্রামের মৃত আফজাল হোসেন সরকারের মেয়ে শিউলী আকতার পারভীনের সাথে ২০১৫ সালে পাশ্ববর্তী কামালেরপাড়া গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিন বেপারীর ছেলে সাইফুল ইসলামের বিয়ে হয়। কিন্তু সাইফুলের নানা অপকর্মের কারণে স্ত্রী শিউলী আকতারের সাথে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। এরই একপর্যায়ে ২০১৭ সালে মাদক মামলায় সাইফুল ওরফে বাটপার সাইফুল জেলে যায়। সেসময় শিউলী আকতার বাবার বাড়িতে চলে আসে। এর কিছুদিন পর সাইফুল জামিনে বেরিয়ে এসে শিউলী আকতারকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর ওই বছরের ২০ জুলাই তাদের মধ্যে আবার পারিবারিক কলহ দেখা দিলে সাইফুল ইসলাম ওরফে বাটপার সাইফুল তার প্রথম স্ত্রীর ভাই আব্দুল করিমকে সাথে নিয়ে শিউলী আকতার পারভীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করে। পরে লাশ গুম করার জন্য কামালেরপাড়া ইউনিয়নের বসন্তেরপাড়া গ্রামের একটি ল্যাট্রিনের সেফটি ট্যাংকে ফেলে দেয় তারা। এঘটনায় নিহত শিউলীর বড় ভাই আজিজুর রহমান বাদী হয়ে সাঘাটা থানায় ৫ জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে ৩০ জুলাই পুলিশ ওই সেফটি ট্যাংক থেকে শিউলীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। 

এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফারুক আহমেদ প্রিন্স জানান, আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। দীর্ঘদিন শুনানী শেষে বৃহস্পতিবার বিচারক এ রায় ঘোষণা করেন। 

মন্তব্য করুন


Link copied