আর্কাইভ  সোমবার ● ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১১ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
ব্রেকিং নিউজ
শিরোনাম: কুড়িগ্রামে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় ৬ শিক্ষক বরখাস্ত       রংপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে আ'লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় বাবলু বহিষ্কার        রংপুর ৯ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার       সংবিধান অনুযায়ই যথা সময়ে নির্বাচন হবে- রংপুরে সমাজকল্যান মন্ত্রী       পঞ্চগড়ে নৌকাডুবিতে ২৪ জনের মৃত্যু      

ঘোড়াঘাটে নিরাপত্তা প্রহরীকে জবাই করে হত্যা

বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, দুপুর ০৪:১৯

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার বুলাকীপুর ইউনিয়নের কালুপাড়া গ্রামে অবস্থিত বিতর্কিত ও অসামাজিক কার্যক্রমে জড়িত মোজাম বিনোদন পার্ক থেকে সবুজ মিয়া (২৫) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 
১০ আগষ্ট বুধবার সকালে ওই পার্কের একটি ঘর থেকে তার ছুরিকাঘাতে জবাই করা লাশ উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও ওই ঘরটি সহ পাশের ঘর থেকে অসামাজিক কার্যক্রমে ব্যবহৃত বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

নিহত সবুজ মিয়া পাশ্ববর্তী গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রায় ভংগী গ্রামের মৃত শরিফ উদ্দিনের ছেলে। সে ১০-১৫ দিন যাবত পার্কটিতে দিনের বেলা মুদিখানার দোকান করত এবং রাতে নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কাজ করত।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর ক্রাইমসিন দলের সদস্যরা আলামত সংগ্রহ করেছে। তারা জানান, নিহত ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। তার বুক ও পিঠে চাকু দিয়ে জখম করা হয়েছে।

নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক পার্কটিতে কর্মরত লোকজন জানান, ঘরটিতে রাতে ৩ জন পতিতা নারী ছিল। তারাই সকালে লাশ দেখতে পেয়ে আরেক নিরাপত্তা কর্মীর মাধ্যমে পার্ক মালিককে খবর দেয়। পরে পার্ক মালিক থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

স্থানীয়রা জানান, পার্ক মালিক মোজাম্মেল দীর্ঘদিন থেকেই সেখানে আশপাশের বিভিন্ন উপজেলা থেকে পতিতা নারীদেরকে নিয়ে এসে অসামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করত। এই ব্যবসা পরিচালনার জন্য সে পার্কটিতে বেশ কয়েকটি কুঠরি ঘর নির্মান করেছে। এই পতিতা ব্যবসাকে কেন্দ্র করেই এই হত্যাকান্ড হয়েছে ্অনেকে ধারনা করছেন। তারা পার্ক মালিক এবং ঘটনার সাথে জড়িত সকলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্থির দাবি করেন।

ঘোড়াঘাট থানার ্অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু হাসান কবির বলেন, কারা এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা আমরা এখনও নিশ্চিত হতে পারিনি। পুরো ঘটনা আমরা তদন্ত করে দেখছি। আশা করি অতি দ্রুত ঘটনার রহস্য উদঘাটন এবং আসামীদেরকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। 
তিনি আরো বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আঃ রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত ব্যক্তির পরিবারের লোকজন এসেছে। মামলার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।
উল্লেখ্য অসামাজিক কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগে গত এপ্রিল মাসে পার্কটিতে অভিযান চালায় পুলিশ। সেখানে দুইজন পতিতা নারী এবং দুইজন খদ্দের সহ পার্কটির মালিক মোজাম্মেল হক মোজাম ও তার জামাতাকে আটক করা হয়। পরে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ইউএনও মালিক এবং তার জামাতাকে ১ মাসের কারাদন্ড প্রদান করে। 

একই মাসে পৃথক আরো একটি অভিযানে এক ইউপি সদস্য সহ একজন পতিতা নারীকে আটক করেছিল পুলিশ।

মন্তব্য করুন


Link copied