আর্কাইভ  সোমবার ● ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ● ২৪ মাঘ ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

শিরোনাম: রংপুরে শিবিরের ৬ নেতা কর্মী গ্রেফতার       রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুদকের অভিযান       তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভূমিকম্পে নিহত ১২০০ ছাড়াল       ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৫৬০, তুরস্কে জরুরি অবস্থা ঘোষণা       ভূমিকম্পে তুরস্ক-সিরিয়ায় ৩১৩ জনের মৃত্যু      

ঠাকুরগাঁওয়ে মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

সোমবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২৩, দুপুর ০৪:৪৯

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে মো: ওমর ফারুক ওরফে ফারুক (২৮) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ এবং ২ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ প্রদান করেছেন আদালত।

২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ৩৬(১) ও ১৪ (গ) ধারায় অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সোমবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের বিজ্ঞ দায়রা জজ মামুনুর রশিদ এ রায় প্রদান করেন। এ মামলায় অপর আসামী মো: রবিউল ইসলামকে খালাস দেওয়া হয়।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০২০ সালের ২৬ আগষ্ট রানীশংকৈল উপজেলার কনরাইট (কুমোরগঞ্জ) বাজারে পুলিশের এসআই মো: খাজিম উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্সসহ মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় পুলিশ জানতে পারে পাশ্বর্তী বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বালিয়াবস্তি গ্রামের মো: আব্দুল আজিজের ছেলে মো: ওমর ফারুক ওরফে ফারুক (২৮) অটো চার্জারযোগে মাদকদ্রব্য বহন করছেন। পরে রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ বাজারের সামনে সন্দেহাতিতভাবে একটি অটো চার্জারকে আটক করা হয়। সেখানে একটি জারকিনের ভেতরে বিশেষ কৌশলে থাকা ১৮৯ বোতল ফেনসিডিলসহ ওমর ফারুককে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে মামলার অপর আসামী রানীশংকৈল উপজেলার জগদল (নদীবস্তি) গ্রামের মো: ইয়াসিন আলীর ছেলে মো: রবিউল ইসলামের নিকট ক্রয় করে নিয়ে এসেছেন বলে জানায়। পরে তাকে ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়।

ততকালীন রানীশংকৈল থানার এসআই আহসান হাবীব তদন্ত করে ২৮ অক্টোবর ২০২০ এ ফারুককে দোষী সাব্যস্ত করে চার্জশিট প্রতিবেদন জমা দেন। 

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলী এ্যাড. শেখর কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে মো: ওমর ফারুক ওরফে ফারুকের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীত ও সন্তোষজনকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ২লাখ টাকা জরিমানা করেছেন বিজ্ঞ জজ এবং অপর আসামী মো: রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন।

 

 

মন্তব্য করুন


Link copied