আর্কাইভ  শুক্রবার ● ১২ আগস্ট ২০২২ ● ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯
আর্কাইভ   শুক্রবার ● ১২ আগস্ট ২০২২
PMBA
 
PMBA

দিনাজপুরে উপমহাদেশের অন্যতম ঈদ জামাত

রবিবার, ১০ জুলাই ২০২২, বিকাল ০৫:০৩

শাহ্ আলম শাহী, দিনাজপুর থেকেঃ এশিয়া উপমহাদেশের অন্যতম ঈদ-উল-আযাহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে,দিনাজপুরে। গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে এ জামাতে দূর-দূরান্ত থেকে অংশ নেয় প্রায় ৩ লাখ মুসল্লি। ধনী-গরিব,উঁচু-নিচু সব ভেদাভেদ ভুলে দিনাজপুরে এ ঈদের জামাত পরিনত হয় মুসল্লিদের মিলন মেলায়। দেশ-জাতির কল্যাণ এবং মুসলিম উম্ম্হর ঐক্য ও শান্তি কামনা করে এ ঈদের নামাজে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

সকাল থেকে মুসল্লিদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে দিনাজপুর গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে এশিয়া উপমহাদেশের অন্যতম ঈদ-উল-আযাহার প্রধান জামাত। প্রায় ২২ একর জায়গার মধ্যে ১০ একর জায়গায় এ ঈদের জামাতে দলে দলে সমাগম ঘটে প্রায় ৩ লাখ মুসল্লির। এ ঈদের জামাত পরিনত হয় মুসল্লিদের মিলন মেলায় । সকাল সাড়ে ৮ টায় অনুষ্ঠিত হয় এ জামাত। নামাজে অংশ নেয় বিচারপতি এনায়েতুর রহিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম,জেলা প্রশাসক,পুলিশ সুপারসহ প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষাধিক মুসল্লি। রাজধানী ঢাকা,নারায়নগঞ্জ,চট্রগ্রাম,সাতক্ষিরা,টাঙ্গাইল,বগুড়া,রংপুর,নীলফামারী,জয়পুরহাটসহ আশপাশের অনেক জেলার মুসল্লি অংশ নেয় এ জামাতে। এশিয়া উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ এ জামাতে নামাজ আদায় করতে পেতে আনন্দে আপ্লুত হয়ে মুসল্লিরা। নারায়নগঞ্জ থেকে এসে নামাতে অংশ নেয়া মুসল্লি রহমত উল্লাহ জানান,এই বড় ঈদ জামাতে নামাজ আদায় করতে পেরে আল্লাহতালাকে লাখো শুকরিয়া। আল্লাহ যেনো আমাকে আবারো সুযোগ দেন এখানে ঈদের নামাজ আদায়ের।

একইভাবে চট্রগ্রাম থেকে দিনাজপুরে এশিয়া উপমহাদেশের অন্যতম ঈদ-উল-আযাহার প্রধান জামাতে নামাজ আদায় করতে পেরে আল্লাহ’র কাছে শুকরিয়া আদায় করেছেন,আকতার হেগাসেন ও মো.এনামুল হোসেন।

এ ঈদের জামাতের নামাজ শেষে মুসল্লিম উম্মার শান্তি কামনা করে মোনাজাত করান ইমামতি আলহাজ মাওলানা শামসুল হক কাসেমি।

দিনাজপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজন সরকার জানান,ঈদের জামাত সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সুজজ্জিত প্রবেশদ্বাওে সিসিটিভি ক্যামেরা,তিনস্তরের সর্বোচ্চ নিরাপত্তাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। 

দৃষ্টি নন্দন এই ঈদগাহ মিনার এ রয়েছে ৫২টি গম্বুজ। প্রধান গম্বুজের সামনে রয়েছে মেহরাব,৪৭ ফুট উচ্চতা ইমাম দাঁড়ানোর স্থান। এর পাশাপাশি রয়েছে ৫১টি গম্বুজ। এছাড়াও ৫১৬ ফুট দৈর্ঘেও ৩২টি আর্চ নিমার্ণ করা হয়েছে। প্রতিনি গম্বুজ ও মিনারে রয়েছে বৈদ্যুতিক বাতি। 

উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ ঈদের এই জামাত সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হওয়ায় সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন এই ঈদগাহ মাঠ তৈরীর উদ্যোক্তা জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।

তিনি দেশ ও মুসল্লিম উম্মার শান্তি কামনা করে বলেন,এবার এ ঈদগা মাঠে ৩ লাখ মুসল্লি নামাতে অংশ নিয়েছেন। কোরবানি ঈদের নামাজ সাধারণতঃ মুসল্লিরা বাড়ির আশপাশেই আদায়ের চেষ্টা করেন। তারপরও এতো মুসল্লি’র সমাগম দিনাজপুর তথা দেশবাসীকে গর্বিত করেছে। গত ঈদ উল ফিতরে ৬ লাখ মুসল্লি এই ময়দানে নামাজ আদায় করেন। আগামীতে আরো বেশি মুসল্লির সমাগম হবে এই ঈদগা ময়দানে। 

মন্তব্য করুন


Link copied