আর্কাইভ  বুধবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২২ ● ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
আর্কাইভ   বুধবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২২
 width=

 

রংপুর সিটি নির্বাচন: ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল 

রংপুর সিটি নির্বাচন: ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল 

রংপুরের মানুষ নৌকা মার্কায় ভোট দিতে উদগ্রীব হয়ে আছে - ডালিয়া 

রংপুরের মানুষ নৌকা মার্কায় ভোট দিতে উদগ্রীব হয়ে আছে - ডালিয়া 

রংপুর সিটি নির্বাচন: মনোনয়ন জমা দিল জাপার মোস্তফা

রংপুর সিটি নির্বাচন: মনোনয়ন জমা দিল জাপার মোস্তফা

রংপুর সিটি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন জামায়াত নেতা বেলাল

রংপুর সিটি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন জামায়াত নেতা বেলাল

 width=
শিরোনাম: হাতীবান্ধায় ট্রেনের ধাক্কায় ইউএনও অফিসের নৈশ প্রহরী নিহত       রংপুর সিটি নির্বাচন: ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল        রংপুরের মানুষ নৌকা মার্কায় ভোট দিতে উদগ্রীব হয়ে আছে - ডালিয়া        বিভেদ ভুলে এক টেবিলে রওশন-কাদের       রংপুর সিটি নির্বাচন: মনোনয়ন জমা দিল জাপার মোস্তফা      
 width=

দিনাজপুরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড

বুধবার, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২২, বিকাল ০৭:৪৮

দিনাজপুর: টানা ছয়দিন ধরে বয়ে যাওয়া মৃদু শৈত্যপ্রবাহে হিমেল হাওয়া আর মাঘের কনকনে শীতে ব্যাহত দিনাজপুরের জীবনযাত্রা। দিনে তাপমাত্রা হ্রাস পাচ্ছে এবং রাতে তাপমাত্রা বাড়তে পারে। আবারও বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি বা এর আশপাশে দিনাজপুরসহ দেশের কিছু কিছু স্থানে আবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির পরে তাপমাত্রা হ্রাস পেলে আবারও শীত বাড়তে পারে। বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দিনাজপুরে ৯.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। 

এদিন ভোর থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে ছিল জনপদ। হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে সব ধরনের যানবাহন। বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ। বিকেলের পর থেকেই হিমেল হাওয়ায় হাড় কাপাঁনো শীত বাড়তে থাকে। মৃদু শৈত্যপ্রবাহে অব্যাহত কুয়াশা আর ঠান্ডায় সকালে এবং সন্ধ্যার পর মানুষের চলাচল কমে যায়। শীতে বিভিন্ন এলাকার ঘরে ঘরে শিশু, বৃদ্ধরা শীতজনিত রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। কুয়াশায় বীজতলা রক্ষায় পলিথিন ব্যবহার করতে হচ্ছে কৃষককে। কুয়াশায় গম, বোরো বীজতলা, আলু ও সবজি চাষে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষক। শহরের অনেক স্থানে রাতে ও সকালে খড়কুটো জ্বালিয়ে অনেককে শীত নিবারণ করতে দেখা যায়।
শহরের ষষ্টিতলা এলাকার নাহিদ বলেন, শীতের কারণে কাজ করতে ভালো লাগে না। হাত-পা জড়ো হয়ে আসে। আবার কাজও ঠিকমতো পাওয়া যায় না। এতে কষ্টের মধ্যে দিনযাপন করছি।

শশরা এলাকার কৃষক আলী আকবর জানান, সকালে কুয়াশা আর কনকনে শীতের কারণে জমিতে কাজে যেতে পারছি না। যদিও প্রয়োজনে গেলে তেমনভাবে কাজ করতে পারি না।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান, বুধবার সকাল ৯টায় দিনাজপুরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা দেশের সর্বনিম্ন দিনাজপুরে তাপমাত্রা বলে রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে ভোর ৬টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তিনি জানান, চলমান শৈত্যপ্রবাহটি দেশের বেশিরভাগ স্থান হতে দূরীভূত হয়েছে। তবে দিনাজপুর, সৈয়দপুর, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, নওগাঁ, রাজশাহী জেলায় শৈত্যপ্রবাহটি এখনো বিরাজ করছে। তবে শৈত্যপ্রবাহটির তীব্রতা কিছুটা কমে বতর্মানে এটি এখন মৃদু আকারে বয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরও জানান, রাত থেকে তাপমাত্রা অল্প অল্প করে বৃদ্ধি পাওয়ার আভাস রয়েছে। আকাশে মেঘের উপস্থিতি ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেই সঙ্গে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি বা এর আশপাশে দিনাজপুরসহ দেশের কিছু কিছু স্থানে আবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির পর শীত আরও বাড়তে পারে।

মন্তব্য করুন


Link copied