আর্কাইভ  রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ● ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১

দিনাজপুর-ফুলবাড়ী আঞ্চলিক সড়কের ওপর ফাকা গ্যাসের ট্যাঙ্ক: দুর্ঘটনার শঙ্কা!

বুধবার, ১৭ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১২:৪৩

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌরএলাকার বারোকোনা এলাকায় আঞ্চলিক সড়ক (দিনাজপুর-ফুলবাড়ী-গোবিন্দগঞ্জ) ঘেঁষে দীর্ঘদিন থেকে পড়ে আছে প্রস্তাবিত এলপিজি গ্যাস পাম্পের খালি ট্যাঙ্ক। এতে যেকোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরণের সড়ক দুর্ঘটনা। আতঙ্কে রয়েছেন পথচারিসহ ছোট-বড় যানবাহরের চালকরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, পৌরএলাকার বারোকোনায় দিনাজপুর-ফুলবাড়ী-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক সড়ক ঘেঁষে দীর্ঘদিন থেকে একটি বড় আকৃতির ফাকা গ্যাসের ট্যাঙ্ক রাখা হয়ে হয়েছে। এতে পথচারিদের চলাচলের ফুটপাত বন্ধ হয়েছে। পথচারিরা আতঙ্ক নিয়ে ব্যস্ততম সড়কের ওপর দিয়েই চলাচল করছেন। বিভিন্ন যানবাহনগুলো প্রায়সময় ওই তেলের ট্যাঙ্ক ঘেঁষে চলাচল করছে। দ্রুতগামী ওই যানবাহনগুলো প্রায়সময় অপর যানবাহনকে সাইড দিতে গিয়ে ওই ট্যাঙ্কটির কাছে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছেন। 

জানা যায়, ওই স্থানে প্রস্তাবিত এলপিজি গ্যাসের পাম্পের কাজ করছেন সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ¦ মনছুর আলী সরকার। এলপিজি গ্যাসের পাম্পের জন্য আনা হয়েছে ওই ট্যাঙ্কটি। দীর্ঘদিন থেকে ব্যস্ততম সড়ক ঘেঁষে তেলের ট্যাঙ্কটি রাখা রয়েছে। 
পথচারীরা জানান, ব্যস্ততম ওই সড়কে দ্রুতগামী যানবাহনের ভয়ে এমনিতেই সড়কে পা রাখা যায় না। তারওপর বড় আকৃতির একটি ট্যাঙ্ক ফুটপাত দখল করে সড়ক ঘেঁষে রাখা হয়েছে। প্রায় সময় ওই স্থানে দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। শঙ্কা করা হচ্ছে ওই ট্যাঙ্কটির কারণে যেকোনো সময় বড়ধরণে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। 
রিকশা ভ্যান চালক খতিবুর রহমান বলেন, গ্যাসের ট্যাঙ্কটির কারণে বড় গাড়ীগুলোকে ওইস্থানে সাইড দেয়া যায় না। অনেক সময় ভয়ে আমরা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলছি। 

ট্রাক চালক শফিকুল ইসলাম বলেন, সড়ক ঘেঁষে যে ট্যাঙ্কটি রাখা হয়েছে সেটি সরিয়ে না নিলে আমরা যেকোনো সময়ে মারাত্মক দুর্ঘটনার কবলে পড়তে পাড়ি। 

এ বিষয়ে সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ¦ মনছুর আলী সরকার বলেন, এলপিজি গ্যাস পাম্পের নির্মাণের জন্য কাজ চলছে। বর্ষার কারণে কাজ বন্ধ ছিল। দ্রুত ওই ট্যাঙ্কটি সরিয়ে নিয়ে নির্ধারিত স্থানে বসানো হবে। 
সড়ক ও জনপথের সার্ভেয়ার ফনিন্দ্র সরকার বলেন, কে বা কাহারা ওই ট্যাঙ্কটি রেখেছে। ট্যাঙ্কটি দ্রুত সরিয়ে নেয়ার জন্য তাকে খোঁজা হচ্ছে। খোঁজ পেলে নোটিশ করা হবে।
ফুলবাড়ী পৌর মেয়র মো. মাহমুদ আলম লিটন বলেন, এটি সড়ক ও জনপদের ব্যাপার সেহেতু বিষয়টি তারাই দেখবেন। 
ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিয়াজ উদ্দিন বলেন, সড়কের উন্নয়ক কাজ ব্যতিত সড়ক দখল করে কোনো স্থাবর সড়কে রাখা যাবে না। যদি রাখা হয় তবে সড়ক ও জনপদ ব্যবস্থা নিবে। 

দিনাজপুর সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী সুনিতি চাকমা বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। তবে যদি কেউ সড়কের ওপর কিছু রেখে চলাচলে বিঘ্নতা ঘটায় তবে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করব।

মন্তব্য করুন


Link copied