আর্কাইভ  বুধবার ● ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ● ১৯ মাঘ ১৪২৯
আর্কাইভ   বুধবার ● ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
 width=
 width=
শিরোনাম: হিলি সীমান্তে বিএসএফ-বিজিবি মুখোমুখি        আগামী দুদিনে সারাদেশের তাপমাত্রা কমতে পারে       পাগলের কুড়ালের কোপে প্রাণ গেল ধান ব্যবসায়ীর       বাংলাদেশের কোচ হাথুরুসিংহে       নীলফামারীতে হাজতখানার আসামীদের বসার জন্য কার্পেট উপহার দিলেন মানবিক বিচারক       
 width=

প্রেমের টানে অস্ট্রিয়ান যুবক হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে দিনাজপুরে বিয়ে

বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, রাত ০৯:২৪

শাহ্ আলম শাহী : প্রেমের টানে হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে দিনাজপুরে এসে বিয়ে করেছেন, অস্ট্রিয়ান নাগরিক অ্যাড্রিয়ান বারিসো নিরা (৩৫) নামের এক যুবক।

 শহরের চাইনিজ রেস্টুরেন্টে " ইয়াম্মী'তে মঙ্গলবার রাতে ধুমদামে বিয়ে করেন,নুসরাত জাহান রুম্পা('২৫) নামের প্রেমিকাকে। খবর পেয়ে তাদের দেখতে মিডিয়া কর্মীরা সহ  ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ।

 অ্যাড্রিয়ান বারিসো নিরা এর আগে গত রোববার বাংলাদেশে আসেন।পরদিন ঢাকা থেকে দিনাজপুরে পৌছেঁন তিনি।

নুসরাত জাহান রুম্পা'র দুলাভাই মনসুর জানান,২০১৯ সালে অ্যাড্রিয়ানের সঙ্গে আমেরিকায় দেখা হয় দিনাজপুরের উপশহরের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে নুসরাত জাহান রুম্পার। রূম্পা একটি এনজিওতে কর্মরত।  সেই সুবাদে আমেরিকান যান তিনি।পরে ফেসবুকসহ নানান সামাজিক মাধ্যমে তাদের কথা হয়। ২০২০ সালে তারা বিয়ে করার জন্য সম্মত হলেও করোনায় সেটি পিছিয়ে যায়। এরই মধ্যে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের এক ক্যামেরা পার্সনের সাথে বিয়ের কথা,চলে রুম্পার।কিন্তু,সেই বিয়েও ভেঙ্গে যায়।

পরে অ্যাড্রিয়ান বাংলাদেশে এসে বিয়ে করেন তাকে। অ্যাড্রিয়ান অস্ট্রিয়ান দেশের একটি নির্মাণ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। 

প্রতিবেদক শাহ্ আলম শাহী'র সাথে এ বিষয়ে রুম্পা'র কথা হয় দিনাজপুর পর্যটন মোটেলে। বিয়ের পর সেখানেই অবস্থান নেন,নব-বিবাহিতারা। তিনি বলেন, ‘মনের দিক দিয়ে অনেক ভালো মানুষ অ্যাড্রিয়ান। তার ব্যবহার খুবই ভালো। আমরা যেন সারাজীবন এভাবে একসঙ্গে থাকতে পারি সেজন্য দোয়া করবেন। আমাকে তার দেশে নিয়ে যেতে চায় সে। এতে প্রায় ছয় মাসের মতো সময় লাগবে। এজন্যে আনুসাঙ্গিক কার্যক্রম চলছে।

অ্যাড্রিয়ান বলেন, ‘২০১৯ সালে তাকে এক ঝলক দেখেছিলাম। এরপর দীর্ঘ চার বছর ধরে তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেভাবে দেখেছি, তার চেয়েও সে অনেক ভালো। এদেশের প্রকৃতি ও মানুষ খুব ভালো। খাবার সুস্বাদু। স্ত্রীকে আমার দেশে নিয়ে যেতে চাই।’

অ্যাড্রিয়ান বারিসো নিরা অস্ট্রিয়ার হিয়ানার বাসিন্দা। পেশায় তিনি একজন  নির্মাণ প্রকৌশলী।তিনি মুসল্লিম বলেও জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুন


Link copied