আর্কাইভ  সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২ ● ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: ১৪ জেলায় ঝড়ের পূর্বাভাস       ডিমলায় আপডেট ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে জরিমানা ও সিলগালা       রংপুরে ধর্ষক গ্রেফতার       পাঁচ দিনের ছুটির কবলে প্রশাসন       এলপিজি গ্যাসের দাম কমল      

রংপুরের সিটি মেয়রকে গ্রেফতারের দাবিতে উত্তাল রংপুর

বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২, সকাল ০৭:২৯

ডেস্ক: রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে উত্তাল হয়ে উঠেছে রংপুর শহর। বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে শহরে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে মহানগর আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ অঙ্গসংগঠনগুলোর নেতা-কর্মীরা।

বৃহস্পতিবারও একই দাবিতে বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় প্রেসক্লাব চত্ত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশের ডাক দিয়েছে সংগঠনগুলো। বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক তুষারকান্তি মন্ডল এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে চিরঞ্জিব মুজিব সিনেমার পরিবেশক আসাদুজ্জামান পাইলট বলেন, ‘মেয়র মোস্তাফিজার রহমানকে প্রদর্শনীতে নিমন্ত্রণ জানাতে ঢাকা থেকে আগত আয়োজকরা তার সঙ্গে দেখা করতে যায়। দীর্ঘসময় তিনি আমাদের বসিয়ে রাখার পর দাওয়াত কার্ডটি ছুড়ে ফেলে দেন এবং এই সিনেমার পোস্টার-ব্যানার কার অনুমতি নিয়ে সাটানো হয়েছে জানতে চান এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পোস্টার-ব্যানারগুলো সরিয়ে ফেলা না হলে সিটি করপোরেশনের লোক দিয়ে নামিয়ে ফেলবেন বলে হুমকি দেন।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আতাউর জামান বাবু, সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী তুহিন, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আসিফ প্রমুখসহ আরও অনেকে। এই ব্যাপারে বক্তব্য জানতে রাতেই মেয়রের বাসা ও সিটি করপোরেশনে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। এর আগেও মেয়র কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর সাথে নিজের একই সাইজের ছবি যুক্ত ব্যানার টানিয়ে ক্ষোভের মুখে পড়েন।

তবে রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা এ বিষয়ে কথা বলেছেন। তিনি কার্ড ছুড়ে ফেলার অভিযোগ অস্বীকার করেন। তবে কার্ড নিয়ে আসা অপরিচিত কয়েজনকে অনুমতি না নিয়ে পোস্টার ব্যানার সাটানোর বিষয়ে কথা বলেছেন বলে স্বীকার করেন। তিনি বলেন, ‘আমি বলেছি, এসব লাগানোর জন্য একটা অনুমতি তো নিতে হয়।’

মেয়র বলেন, আমার কথার প্রেক্ষিতে তারা পোস্টার-ব্যানার নামিয়ে ফেলতে সম্মত হলে আমি বলি আলহামদুলিল্লাহ। তিনি বঙ্গবন্ধুর প্রতি তার গভীর শ্রদ্ধার কথা জানিয়ে আরও বলেন, ‘এ ঘটনা অসৎ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং নব্য আওয়ামী লীগারদের অপপ্রচার, যারা আওয়ামী লীগের দুর্দিন দেখেনি।’

মন্তব্য করুন


Link copied