আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২ ● ১৯ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: নির্বাচন বর্জনের সিদ্বান্ত এখনও হয়নি- জিএম কাদের       জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়: দেশের অধিকাংশ জেলায় বিদ্যুৎ নেই       মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেতুর রেলিংয়ে ধাক্কা, নিহত ৪       এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর কঠোর হুঁশিয়ারি       দিনাজপুরে ইউএনও হত্যা চেষ্টা  স্পর্শকাতর মামলার রায় পিছিয়ে গেলো      

রংপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত শিশুর মৃত্যু

বৃহস্পতিবার, ১২ মে ২০২২, রাত ০৮:৩৬

মমিনুল ইসলাম রিপন: রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় জমির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত শিশু আঞ্জুয়ারা বেগম (১২) মারা গেছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। নিহত আঞ্জুয়ারা উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের আমজাদ হোসেনের মেয়ে। এর আগে গত ৯ মে বিশ্বনাথ গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে দুই পক্ষের নারী ও শিশুসহ অন্তত নয়জন আহত হন। এদের মধ্যে আঞ্জুয়ারাসহ গুরুতর দুইজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন বিশ্বনাথ গ্রামের ইব্রা মিয়া, খলিল মিয়া, মজনু মিয়া ও মোস্তফা।

পুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে,  বিশ্বনাথ গ্রামের আব্দুল হামিজের বসতভিটার কিছু অংশ প্রতিবেশী আব্দুল হাকিম নিজের দাবি করে এক মাস আগে সীমানা নির্ধারণ করেন। সেই সঙ্গে জমিতে থাকা গাছ কেটে ফেলেন। এই সীমানা নিয়ে সন্দেহ হলে হামিজ ও তার স্বজনরা ৯ মে বিকেলে পুনরায় সীমানা নির্ধারণ করতে যান। এতে হাকিম বাধা দেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষ বাগবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এতে হামিজসহ তার পক্ষের ছয়জন এবং হাকিমের পক্ষের তিনজন আহত হন। পরে হামিজসহ তার পক্ষের ছয়জনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আঞ্জুয়ারা ও হামিজের স্ত্রী আমেনাকে (৫০) রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  ভর্তি করা হয়। এছাড়া আর আব্দুল হামিজ (৫৫), তার ছেলে আমজাদ হোসেন (৩৩), সিনবাদ (২৬) ও আফজাল হোসেন (৩৫) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় হামিজের চাচাতো ভাই সোলেমান আলী বাদী হয়ে ওইদিন রাতে কাউনিয়া থানায় মামলা করেছেন। 

কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমান আঞ্জুয়ারার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান ,এ ব্যাপারে সোলেমান বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। ওই মামলাটি এখন হত্যা মামলা হিসেবে গণ্য হবে। মঙ্গলবার  গ্রেফতার চারজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য করুন


Link copied