আর্কাইভ  বুধবার ● ৫ অক্টোবর ২০২২ ● ২০ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   বুধবার ● ৫ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: মধ্য আফ্রিকায় নিহত শান্তিরক্ষী ডিমলার জাহাঙ্গীরের পরিবারে শোকের মাতম       মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে বোমা বিস্ফোরণে তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত       শিশুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে গণপিটুনি, পুলিশে সোপর্দ       রেলগেটে কুকুরের নিয়ম মানার ছবি ভাইরাল       নির্বাচন বর্জনের সিদ্বান্ত এখনও হয়নি- জিএম কাদের      

রংপুরে পেট্রল বোমা মেরে মানুষ হত্যা; ৮ বছর পর আসামি গ্রেফতার

মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর ২০২১, রাত ০৮:৪২

মমিনুল ইসলাম রিপন: রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় জায়গীর বাতাসনে একটি যাত্রীবাহি বাসে পেট্রল বোমা মেরে শিশুসহ সাতজনকে পুড়িয়ে হত্যার মামলার অন্যতম আসামি ফারুখ হোসেনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে দীর্ঘ আট বছর আত্মগোপনে ছিলেন জামায়াতে ইসলামীর ওই নেতা।
মঙ্গলবার (০৯ নভেম্বর) বিকেলে মিঠাপুকুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুল ইসলাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
এর আগে সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ফারুখ হোসেনকে  একই উপজেলার পায়রাবন্দ এলাকার একটি বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি মিঠাপুকুর উপজেলার জয়রামপুর আনোয়ার গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে। যাত্রীবাহি বাসে পেট্রল বোমা মেরে শিশুসহ সাতজনকে পুড়িয়ে হত্যার ওই ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন।মঙ্গলবার দুপুরে আসামি ফারুখ হোসেনকে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের (মিঠাপুকুর) আমলি আদালতে হাজির করা হয়। পরে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আসামির পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিল না এবং তার জন্য কেউ জামিন আবেদনও করিনি।
ওসি আমিরুল ইসলাম জানান, মিঠাপুকুরের বাতাসন এলাকায় ২০১৪ সালে চলন্ত বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়ে শিশুসহ সাত নিরপরাধ মানুষকে জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলার অন্যতম প্রধান আসামি জামায়াত নেতা ফারুখ হোসেন। তিনি ঘটনার পর থেকে আত্মগোপনে ছিলেন। তার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিলের পর গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। একই সঙ্গে আসামির মালামাল ক্রোকের আদেশ দেন আদালত।
দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপনে থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া তার বিরুদ্ধে নাশকতাসহ ধংসাত্মক কর্মকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেওয়ার অভিযোগসহ ৮টি মামলা রয়েছে।  

মন্তব্য করুন


Link copied