আর্কাইভ  রবিবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১০ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   রবিবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে ভুয়া চাকুরীদাতা প্রতারক চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার       মরিয়ম মান্নানের মা জীবিত উদ্ধার; ছিলেন স্বেচ্ছায় আত্মগোপনে       ডেপুটি স্পিকারের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ       এনআইডিতে লাগবে ১০ আঙুলের ছাপ       গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিক, সম্পাদক মোজাম্মেল      

রংপুর চিড়িয়াখানায় বাঘ নেই, সিংহটির অবস্থাও কাহিল

বুধবার, ১৬ মার্চ ২০২২, সকাল ০৯:২০

ডেস্ক: রংপুর চিড়িয়াখানা। রংপুর বিভাগের একমাত্র এই চিড়িয়াখানার বর্তমানে খুবই নাজুক অবস্থা। প্রাণীর সংখ্যা দিনে দিনেই কমছে। চিড়িয়াখানায় একটাও বাঘ নেই। ছিল একটি মাত্র বাঘিনী, সেটাও বেশ কিছুদিন আগে মারা গেছে। একটি মাত্র সিংহ রয়েছে, সেটির অবস্থাও কাহিল।

জলহস্তি তিনটির মধ্যে একটি মারা গেছে। অনেক প্রাণীর সঙ্গী নেই, ফলে প্রজনন হচ্ছে না। চিড়িয়াখানার অনেক খাঁচা প্রাণিশূন্য, ফলে একসময়ের বহুল আলোচিত চিড়িয়াখানাটি তার জৌলুস পুরোপুরি হারিয়ে ফেলেছে। বিভিন্ন জেলা থেকে আসা দর্শকের কোলাহলে একদা মুখরিত চিড়িয়াখানাটি দর্শকশূন্য হয়ে পড়ছে। পশুদের পর্যাপ্ত খাবার সরবরাহ না করা, সুচিকিত্সার ব্যবস্থা না থাকাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগও পাওয়া গেছে।

রংপুর চিড়িয়াখানার মূল আকর্ষণই ছিল রয়েল বেঙ্গল টাইগার। এখানকার পরিবেশ বাঘ প্রজননের উপযোগী হওয়ায় ৯০-এর দশকে প্রতিষ্ঠিত এই চিড়িয়াখানায় রয়েল বেঙ্গল টাইগার এ পর্যন্ত ২২টিরও বেশি বাচ্চার জন্ম দিয়েছে। এখান থেকে রয়েল বেঙ্গল টাইগার ঢাকার মিরপুর চিড়িয়াখনায় বেশ কয়েকবার নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ রংপুর চিড়িয়াখানায় জন্ম নেওয়া রয়েল বেঙ্গল টাইগার কুয়েতের আমিরকে শুভেচ্ছার নিদর্শন হিসেবে উপহার দিয়েছেন। কিন্তু দেখভালের অভাবে বাঘের সংখ্যা কমতে শুরু করে। একসময় একেবারে বাঘশূন্য হয়ে পড়ে চিড়িয়াখানাটি। বেশ কয়েকটি বাঘ চিকিৎসার অভাবে মারা গেছে বলে দায়িত্বরত কর্মচারীরা স্বীকার করেন। পুরো চিড়িয়াখানায় সিংহ আছে সাকুল্যে একটি। বেশ কিছুদিন আগে সঙ্গীনী সিংহীটি মারা যাওয়ার পর থেকে সিংহটি একাকী বিষণ্ণ জীবন যাপন করে আসছে। কর্তৃপক্ষের কাছে বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও এখানে সিংহের সঙ্গী দেওয়া হয়নি। বর্তমানে যে সিংহটি আছে, তার বয়স ১৮ বছর পার হয়ে গেছে। অর্থাৎ, এটির আয়ুও প্রায় শেষ হতে চলেছে।

রংপুর চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর আম্বার আলী তালুকদার স্বীকার করেন যে, একমাত্র বাঘটি সঙ্গীর অভাবে মারা গেছে। সিংহটিও একাকী জীবন কাটাচ্ছে। তবে অচিরেই দুটি বাঘ, দুটি সিংহ ও দুটি জেব্রা আনা হচ্ছে। চিড়িয়াখানার যাবতীয় সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

মন্তব্য করুন


Link copied