আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২ ● ১৯ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত       পঞ্চগড়ে নৌডুবিতে ইজারাদার ও অদক্ষ মাঝিকে দায়ী করে প্রতিবেদন দাখিল       অপুকে ডিভোর্সের ১৪৮ দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব       সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমল ১৪ টাকা       বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি- রংপুরে জিএম কাদের      

রংপুর বিভাগে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ হাজার ৫৭৮

বৃহস্পতিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, বিকাল ০৬:৩৫

মমিনুল ইসলাম রিপন, রংপুর, (৩০ ডিসেম্বর) ২০২১: দিনাজপুর বোর্ডের অধীনে রংপুর বিভাগের আট জেলায় ২০২১ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় ৯৪ দশমিক ৮০ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে। এবারে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ হাজার ৫৭৮ জন শিক্ষার্থী। গত কয়েক বছরের মধ্যে এটি দিনাজপুর বোর্ডের সর্বোচ্চ পাসের হার। 

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে এ তথ্য জানান বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা তোফাজ্জুর রহমান।

তিনি জানান, এবারে পাসের হার বেশি হওয়ার কারণ বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে পরীক্ষার নম্বর যোগ হয়েছে জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল অনুসারে। প্রতি বিভাগ থেকে মোট তিনটি করে বিষয়ের পরীক্ষা হয়েছে। সাধারণত শিক্ষার্থীরা ইংরেজি ও গণিত বিষয়েই বেশি ফেল করে। যেহেতু এবারে ওই বিষয়ে পরীক্ষা হয়নি তাই এবারে পাসের হার বেশি।  

এবারে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে আটটি জেলার মোট ১ লাখ ৯৬ হাজার ২২৩ জন শিক্ষার্থী ২৭৫টি কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। তাদের মধ্যে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৩৬২ জন শিক্ষার্থী পাস করেছে। পাসের হার ৯৪ দশমিক ৮০ শতাংশ। এর মধ্যে ছাত্র পাসের হার ৯৪ দশমিক ০৭ শতাংশ এবং ছাত্রীর পাসের হার ৯৫ দশমিক ৫৮ শতাংশ। এবারের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাওয়া ১৭ হাজার ৫৭৮ জনের মধ্যে ছাত্রের সংখ্যা ৮ হাজার ৬৭২ জন এবং ছাত্রীর সংখ্যা ৮ হাজার ৯০৬ জন। গত কয়েক বছরের মধ্যে এবারের পরীক্ষায় সর্বোচ্চ ২ হাজার ৮১১ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন।

দিনাজপুর বোর্ডের অধীনে এবার শতভাগ পাস করেছে ৪৯৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

এবারে বিগত বছরগুলোর তুলনায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তের সংখ্যাতেও ছিল সর্বোচ্চ। ২০২০ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১২ হাজার ৮৬ জন, ২০১৯ সালে ৯ হাজার ২৩ জন, ২০১৮ সালে ১০ হাজার ৭৫৫ জন, ২০১৭ সালে ৬ হাজার ৯২৯ জন, ২০১৬ সালে ৮ হাজার ৮৯৯ জন এবং ২০১৫ সালে ১০ হাজার ৮৪২ জন।

 

 

মন্তব্য করুন


Link copied