আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২২ ● ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২২
 width=

 

রংপুর সিটি নির্বাচন: দলীয় কোন্দলে পরাজয়ের আশঙ্কা আ.লীগ প্রার্থীর

রংপুর সিটি নির্বাচন: দলীয় কোন্দলে পরাজয়ের আশঙ্কা আ.লীগ প্রার্থীর

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

 width=
শিরোনাম: বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু       স্কুলে ভর্তির লটারির তারিখ পরির্বতন       আগামী বছর বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় হবে পাকিস্তানের দ্বিগুণ       ব্যায়াম করার সময় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু       রংপুরে নবাগত জেলা প্রশাসক ড. চিত্রলেখা নাজনীনের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়      
 width=

লালমনিরহাটে ৩ জঙ্গির যাবজ্জীবন, ১ জনের ১৪ বছর কারাদণ্ড

সোমবার, ২১ নভেম্বর ২০২২, দুপুর ০২:২১

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) তিন সদস্যকে  নাশকতা ও অস্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালত। একেই সঙ্গে আরেক জেএমবি সদস্যকে ১৪ বছর কারাদন্ড দিয়েছেন।

সোমবার ( ২১ নভেম্বর) দুপুরে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান এ রায় প্রদান করেন।  

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার সাংটেপুর গ্রামের নজরুল ইসলামেরর ছেলে শফিকুল ইসলাম, পার্শ্ববর্তী সাহেবডাঙ্গার গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে আপেল মিস্তি ও  কালীগঞ্জ উপজেলার মশুরোধ মদাতীর হাফিজুর রহমানের ছেলে মোখলেছুর রহমান।

১৪ বছর কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন, পাটগ্রাম উপজেলার মির্জারকোট এলাকার মজিবর রহমানের পুত্র তফিজুল ইসলাম।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের রাতে জেএমবি সদস্যরা পাটগ্রামের এমএম প্লাজা মার্কেটের সাথে একটি কাঠের ফার্নিচার দোকানে তারা বৈঠক করে। ওই সময় সেখানে রংপুর র‌্যাব-১৩ সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ৪ জন আটক হন। এ সময় দেহ তল্লাশি করে ফজলে রাব্বির কাছ থেকে গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল তিনজনের কাছে উদ্ধার করেন। তাঁদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা করা হয়। এ ছাড়া এই তিনজনসহ ১জনের জনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের কয়েকটি ধারায় আরেকটি মামলা করেন।  তাই তাকে ১৪ বছর ১৪ বছর কারাদণ্ড দেন আদালত।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জেলা দায়রা জজ আদালতের (পিপি) আকমল হোসেন আহমেদ বলেন, তারা মূলত সরকারকে উৎখাত করার জন্যই বিভিন্ন নাশকতার জন্য বৈঠক করছিল। এসব বিষয় সত্যতা পেয়ে তাদের তিনজনকে যাবজ্জীবন ও একজনকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মন্তব্য করুন


Link copied