আর্কাইভ  সোমবার ● ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ● ২৪ মাঘ ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

শিরোনাম: রংপুরে শিবিরের ৬ নেতা কর্মী গ্রেফতার       রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুদকের অভিযান       তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভূমিকম্পে নিহত ১২০০ ছাড়াল       ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৫৬০, তুরস্কে জরুরি অবস্থা ঘোষণা       ভূমিকম্পে তুরস্ক-সিরিয়ায় ৩১৩ জনের মৃত্যু      

শেকলে বাঁধা সেই সোহাগীর পাশে দাঁড়ালেন মোজাম্মেল ও মমতাজ আলী শান্ত

শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০২২, রাত ১০:৫৬

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: "এক যুগেরও বেশি সময় ধরে শিকলে বাঁধা সোহাগীর জীবন!" শিরোনামে উত্তরবাংলা ডটকম এ সংবাদ  প্রকাশের পর শিকল বাধা সেই সোহাগীর (১৮) পাশে দাঁড়িয়েছেন লালমনিরহাট জেলা পরিষদ সদস্য মোজাম্মেল হক ও তার বড় ভাই সমাজ সেবক - তরুণ উদ্যোক্তা মোঃ মমতাজ আলী শান্ত।

শুক্রবার(২৫ নভেম্বর) বিকেলে নতুন শীতবস্ত্র ও চিকিৎসার জন্য সোহাগীর বাবা মায়ের হাতে নগদ অর্থ সহায়তা তুলে দেন। এর আগে গত ২২ নভেম্বর ‘শিকলে বাধা সোহাগীর জীবন’ শিরোনামে একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় প্রকাশিত হয় উত্তরবাংলা ডটকম এ ।

মানসিক ভারসাম্যহীন সোহাগী বেগম আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের নামুড়ি কদমতলা মোড় এলাকার দুলাল মিয়ার মেয়ে।

এক যুগেরও বেশি সময় ধরে শিকলে বাঁধা সোহাগীর জীবন!

জানা গেছে, চার বছর বয়সে পুকুরে ডুবে যাচ্ছিলেন সোহাগী। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পেট থেকে পানি বের করতে গেলে মাথায় আঘাত পেয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন তিনি।

ভূমিহীন ছাট মাংস বিক্রেতা দুলাল মিয়া টানা ৪/৫ বছর ধরে মেয়ের চিকিৎসা করান। অনেক টাকা খরচ করেও মেয়েকে সুস্থ্য করতে ব্যর্থ হন। ছুটে গিয়ে মানুষের ক্ষতি করতে পারে সেই আশংকায় সোহাগীর পায়ে শিকল বেঁধে রাখে তার পরিবার। এভাবে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে সোহাগীর জীবন কাটছে শিকলে বন্দি হয়ে।

সোহাগীর এমন করুণ ইতিহাসের সচিত্র প্রতিবেদন দেখে তাকে সহায়তা করতে হাত বাড়িয়ে দেন লালমনিরহাট জেলা পরিষদ সদস্য(কালীগঞ্জ) মোজাম্মেল হক ও সমাজ সেবক- তরুণ উদ্যেক্তা মোঃ মমতাজ আলী শান্ত।

শুক্রবার বিকেলে সোহাগী ও তার পরিবারের সবার জন্য শীতের নতুন পোশাক এবং তার চিকিৎসার জন্য নগদ ১০ হাজার টাকা নিয়ে সোহাগীর পাশে দাঁড়ান তিনি। আগামী দিনেও সোহাগীর পরিবারকে সহায়তা দিতে সাধ্যমত চেষ্টা করারও আশ্বাস দেন মোজাম্মেল।

মানবিক প্রতিবেদন প্রকাশ করায় সমাজ সেবক ও তরুণ উদ্যেক্তা মোঃ মমতাজ আলী শান্ত  বলেন, প্রতিবেদনটি খুব খারাপ লেগেছে। তাই তার চিকিৎসার জন্য ক্ষুদ্র সহায়তা করেছি। আগামীতেও সোহাগী ও তার অসহায় পরিবারে পাশে থাকব আমরা। অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফুটলে আমার মনের আত্নতৃপ্তি। আগামীতেও আমার এই সামাজিক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন।

জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ মোজাম্মেল হক বলেন, আমার নির্বাচনি এলাকার বাইরে হলেও সোহাগীর এই করুন দৃশ্য দেখে খুব খারাপ লেগেছে। আমি যথা সাধ্য চেষ্টা করবো সোহাগীর পাশে থাকার।আগামীতে সরকারি সহায়তা এ পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করব।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পলাশী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরবক্ত মিয়া, ভাদাই ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক ইকবাল হোসেন, সাংবাদিক খোরশেদ আলম সাগর, হাসানুজ্জামান হাসান ও ব্যবসায়ী রায়হান কবির।

সহায়তা পেয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সোহাগীর মা সাবিনা বেগম বলেন, হামার (আমার) মত গরিব ও অসহায়দের যারা সাহায্য করেছেন। আল্লাহর কাছে দোয়া করি তারা হেফাজতে থাক। আল্লায় ওমার (তাদের) ভালো করবে। জীবনভর দোয়া করিম (করবো)।

মন্তব্য করুন


Link copied