আর্কাইভ  রবিবার ● ২৯ মে ২০২২ ● ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
আর্কাইভ   রবিবার ● ২৯ মে ২০২২

https://www.facebook.com/Safeandsaverestaurant

জাপার দুর্গ রংপুরের ১২ ইউপিতে প্রার্থী নেই জাপার

বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, সকাল ০৯:৪৯

ডেস্ক: সপ্তম ধাপে ৭ ফেব্রুয়ারি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার ১৭টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) ভোট। এতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ১৭, বিদ্রোহী ৭, বিএনপি ২, জাপা ৫ ও জামায়াতের ১৩ নেতা প্রার্থী হয়েছেন। একসময়ের দুর্গ হিসেবে পরিচিত এই এলাকায় ১২টিতে কোনো প্রার্থী দিতে পারেনি জাপা।

১৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মিঠাপুকুর দেশের বৃহত্তম উপজেলা। ছয় লাখের বেশি জনসংখ্যা অধ্যুষিত এই উপজেলার ভোটার প্রায় চার লাখ। এবারের নির্বাচন বেশ জটিল হবে। তবে সুষ্ঠু ভোট হওয়া নিয়ে সংশয় অনেকটা দূর হয়েছে পাশের পীরগঞ্জ উপজেলার ভোটের ফল দেখে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, ভোট সুষ্ঠু হলে মানুষ তার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জাপার যে পাঁচজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তাঁরা হলেন, পায়রাবন্দে রেজাউল ইসলাম রেজা, দুর্গাপুরে সারোয়ার মিয়া, কাফ্রিখালে হাফিজুর রহমান চৌধুরী, বালার হাটে বজলার চৌধুরী ও মির্জাপুরে গোলাম আজম মিলন।

উল্লেখ্য, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৯৯১ সালে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ নির্বাচিত হন। এরশাদের ছেড়ে দেওয়া উপনির্বাচনে জাতীয় পার্টির মিজানুর রহমান চৌধুরী নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে এইচ এম এরশাদ আবারও নির্বাচিত হলে, উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান নির্বাচিত হন। ২০০১ সালে জাতীয় পার্টি থেকে শাহ সোলায়মান ফকির নির্বাচিত হন। এর পর থেকে আওয়ামী লীগের দখলে রয়েছে রংপুর-৫ সংসদীয় আসনটি।

কেন জাপা প্রার্থী দিতে পারেনি? এই প্রশ্নের উত্তরে রংপুর জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘স্থানীয় নেতাদের অনাগ্রহ ও নির্বাচনের পরিবেশ অনুকূল না থাকায় আমরা সব ইউনিয়নে প্রার্থী দিতে পারিনি। তবে যে যাই বলুক, জাপার দুর্গ রংপুর। ’

মন্তব্য করুন


Link copied