আর্কাইভ  সোমবার ● ২০ মে ২০২৪ ● ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
আর্কাইভ   সোমবার ● ২০ মে ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: রংপুরে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের তিন সদস্যের সাজা প্রদান       চলতি বছরই বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতু দিয়ে চলবে ট্রেন       দিনাজপুর মেডিকেলে আটক ২১ দালালের নেপথ্যে শক্তিশালী সিণ্ডিকেট        পুড়ে ছাই রাইসির হেলিকপ্টার, কারও বেঁচে থাকার চিহ্ন নেই       ভারতে পাঁচারের উদ্দেশ্যে লুকিয়ে রাখা কষ্টি পাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১       

 width=
 

আজারবাইজানে পড়তে গিয়ে খুনের শিকার রাজশাহীর রিয়া

বৃহস্পতিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২, রাত ০৯:২১

ডেস্ক: আজারবাইজানের বাকু বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্রী রিয়া ফেরদৌসী (৩৩) দুর্বৃত্তের হাতে খুন হয়েছেন। বুধবার দেশটির স্থানীয় সময় সকাল ১০টার দিকে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত শিক্ষার্থী রিয়া রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা সদরের কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামের আবু বক্করের মেয়ে। তবে আজারবাইজানে বাংলাদেশি কনস্যুলেট না থাকার কারণে ইরানে বাংলাদেশের কনস্যুলেট থেকে কূটনৈতিক তৎপরতা করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

নিহত রিয়ার ভাই ফরমান আলী বলেন, রিয়া ঢাকার একটি কলেজ থেকে কয়েক বছর আগে অনার্স শেষ করে আইন পড়তে গত বছর আজারবাইজানের বাকু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়। লেখাপড়ার পাশাপাশি সেখানে একটি রেস্টুরেন্টে খণ্ডকালীন চাকরি নেয় রিয়া। সেখানকার লোকের মাধ্যমে শুনেছি ওই রেস্টুরেন্টে যাতায়াতের সময় স্থানীয় কিছু বখাটে যুবক তাকে প্রতিনিয়ত উত্ত্যক্ত করত। তাদের কথায় রাজি না হওয়ায় গতকাল বুধবার সকালে দিকে রিয়াকে তুলে নিয়ে যায়। পরে তার হাত-পা ভাঙা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে কারা, কীভাবে বা কি কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা এই মুহূর্তে আমরা বলতে পারব না। রিয়া ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট।

বাবা আবু বক্কর বলেন, ‘অনেক কষ্টে আমাদের সংসার চলে। ছোট থেকেই মেয়েটার একটা স্বপ্ন ছিল, সে ব্যারিস্টার হবে। আর আমাদের সব কষ্ট দূর করবে। এখনতো সব শেষ।’ তিনি বলেন, ‘আমি গরিব মানুষ। খুনিকে শনাক্ত করা বা বিচার পাওয়ার কোনো আশা নেই। তাই সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানাই, অন্তত মেয়ের লাশটা যেন দেশে এনে আমাদের কাছে পৌঁছে দেন।’
এ ব্যাপারে পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, ‘এখানকার একটি মেয়ে বিদেশে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন এমন কথা শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত প্রশাসনিকভাবে লিখিত কোনো তথ্য বা ভুক্তভোগী পরিবারের কেউ আমাদের কিছুই জানায়নি।’

মন্তব্য করুন


 

Link copied