আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ১৬ আগস্ট ২০২২ ● ১ ভাদ্র ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ১৬ আগস্ট ২০২২
 
PMBA

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি : বাস সংকটে মোড়ে মোড়ে অপেক্ষা

শনিবার, ৬ আগস্ট ২০২২, দুপুর ১১:৫৩

জ্বালানি তেলের নতুন দাম গতকাল শুক্রবার দিনগত রাত ১২টা থেকে কার্যকর হয়েছে। এর পরপর আজই প্রথম কর্মদিবস। এদিন সকাল থেকেই বাসের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা সড়কে দাঁড়িয়েও পাচ্ছেন না গণপরিবহণ। পেলেও উঠতে না পারছে না নারী, শিশু ও বয়স্করা। ফলে দুর্ভোগে পড়েছে তারা। কর্মক্ষেত্রে সময়মতো পৌঁছাতে অনেকে বেশি ভাড়া নিচ্ছে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, রিকশা। এতে যাত্রীদের ভোগান্তি ও ক্ষোভ বাড়ছে।

আজ শনিবার ঢাকার কারওয়ান বাজার, বাংলামোটর, শাহবাগ, আজিমপুর, মগবাজার, রামপুরা এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

এসব এলাকার মোড়ে মোড়ে গণপরিবহণের জন্য দাঁড়ানো যাত্রীদের ভিড় চোখে পড়ার মতো। গণপরিবহণের চেয়ে সড়কে বেশি চলছে প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস ও সিএনজি। মাঝেমধ্যে দু-একটি বাসের দেখা মিললেও সেগুলো যাত্রীতে ঠাসা। এতে হতাশ যাত্রীদের কেউ কেউ সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে যান গন্তব্যে। এমন মুহূর্তে রিকশা ভাড়াও বেশি হাঁকছেন চালকেরা। সিএনজিচালিত অটোরিকশার অবস্থাও একই।

সাপ্তাহিক ছুটির দিন সড়কে মানুষের সংখ্যা কম থাকে। তারপরও আজ শনিবার আজিমপুর বাসস্ট্যান্ডে এমনিতেই দাঁড়িয়ে ছিল বাস। যাত্রীরা উঠতে গিয়ে শোনেন, ছাড়া হবে না সেগুলো। বেশ কিছু সময় পর আসে বনানীগামী পরিবহণ। হুড়োহুড়ি করে ওঠেন যাত্রীরা। বাকিরা উঠতে না পেরে আবারও শুরু করেন অপেক্ষার পালা।

সদরঘাট এলাকা থেকে একটি বেসরকারি কোম্পানির কর্মকর্তা অপেক্ষায় ছিলেন বাসের। তিনি বলেন, ‘অন্যান্য দিনের তুলনায় আজ সকালে বাসের সংখ্যা কম। অন্যান্য পরিবহণও কম চলছে। মনে হচ্ছে—এটি জ্বালানি তেল বাড়ানোর প্রভাব।’

কারওয়ান বাজার মোড়ে গুলিস্তানের উদ্দেশে বাসের জন্য অপেক্ষমান আঞ্জুয়ারা বলেন, ‘আধা ঘণ্টায় মতিঝিল রুটে দুটি বাস এসেছে। বাস দুটি লোকে ঠাসা। উঠতে পারিনি। এখন সিএনজি নেব ভাবছি। কিন্তু, তারা ভাড়া চাচ্ছে অনেক বেশি।’

রাজধানীর মতো একই চিত্র বন্দরনগরীতেও। জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পর থেকে চট্টগ্রামে গণপরিবহণ না পেয়ে মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে। আজ সকাল থেকে বিভিন্ন অফিসগামী লোকজনকে যানবাহন না পেয়ে হেঁটে কর্মস্থলে যেতে দেখা গেছে। গণপরিবহণের অপেক্ষায় মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে বেশি।

গতকাল শুক্রবার রাত ১২টা থেকেই কার্যকর হয়েছে জ্বালানি তেলের নতুন দাম। এ বিষয়ে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপন বলছে—ডিজেলের দাম লিটারে ৩৪ টাকা, অকটেনের দাম লিটারে ৪৬ টাকা আর পেট্রোলের দাম লিটারে ৪৪ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এখন এক লিটার ডিজেল ও কেরোসিন কিনতে লাগবে ১১৪ টাকা। অকটেন কিনতে প্রতি লিটারে দিতে হবে ১৩৫ টাকা। আর প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম ১৩০ টাকা।

দাম বাড়ার কারণ ব্যাখ্যায় জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) বিগত ছয় মাসে (ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাই ২০২২ পর্যন্ত) জ্বালানি তেল বিক্রিতে আট হাজার ১৪ কোটি টাকার বেশি লোকসান দিয়েছে। বর্তমানে আন্তর্জাতিক তেলের বাজার পরিস্থিতির কারণে বিপিসির আমদানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে যৌক্তিক মূল্য সমন্বয় অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

মন্তব্য করুন


Link copied