আর্কাইভ  বুধবার ● ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ● ১৯ মাঘ ১৪২৯
আর্কাইভ   বুধবার ● ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
 width=
 width=
শিরোনাম: হিলি সীমান্তে বিএসএফ-বিজিবি মুখোমুখি        আগামী দুদিনে সারাদেশের তাপমাত্রা কমতে পারে       পাগলের কুড়ালের কোপে প্রাণ গেল ধান ব্যবসায়ীর       বাংলাদেশের কোচ হাথুরুসিংহে       নীলফামারীতে হাজতখানার আসামীদের বসার জন্য কার্পেট উপহার দিলেন মানবিক বিচারক       
 width=

নীলফামারীতে অপহরনের পর মুক্তিপণ; কিশোর গ্যাংয়ের তিন সদস্য গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, বিকাল ০৬:০৫

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী॥ এক কিশোরকে অপহরন করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টার সময় নীলফামারী র‌্যাব-১৩ সিপিসি-২ এর অভিযানে গত বুধবার(১৭ আগষ্ট) রাতে কিশোর গ্যাং এর  তিন সদস্য গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো ওয়াহেদ আলীর ছেলে জীবন ইসলাম(১৮), রবিউল ইসলামের ছেলে ফিরোজ ইসলাম(১৯) ও মৃত মনছুর আলীর ছেলে সোহেল রানা (২১)। তারা সবাই নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের নিয়ামতপুর বাসটার্মিনাল এলাকার বাসিন্দা। তাদের সৈয়দপুর থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব।  বৃহস্পতিবার(১৮ আগষ্ট) দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরন করেছে সৈয়দপুর থানা পুলিশ।

জানা যায়, দিনাজপুর জেলার খানসামা উপজেলার দুবলিয়া এলাকার রঞ্জন চন্দ্র রায়ের ছেলে তমাল চন্দ্র রায় (১৮) বুধবার সকাল দশটার দিকে সৈয়দপুর শহরে আসে। বাড়ি ফিরার পথে তাকে বাসটার্মিনালের খালেক পাম্প সংলগ্ন এলাকা থেকে কিশোর গ্যাংয়ের তিন সদস্য তাকে অপহরন করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে অপহৃতরা তমাল রায়ের  বাবাকে ফোন করে মুক্তিপন হিসাবে ২০হাজার টাকা দাবী করে।

বিষয়টি তাৎক্ষনিক ভাবে তমাল রায়ের বাবা র‌্যাবকে অবহিত করে। এরপর কৌশল অবলম্বন করে তমাল রায়ের বাবা মুক্তিপণ্যের ২০ হাজার টাকা দিতে রাজি হন। কিশোর গ্যাং এর দেয়া ঠিকানা অনুযায়ী রাতে সৈয়দপুর-নীলফামারী বাইপাস সড়কের মদিনা জামিয়াতুল মাদরাসার সামনে র‌্যাবের সদস্যরা সাদা পোষাকে অবস্থান নেন। সেখানে তমালের বাবা মুক্তিপণের টাকা নিয়ে এলে কিশোরগ্যাং এর সদস্যরা সেই টাকা নিতে আসে। তখনি র‌্যাব অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার ও অপহৃদ তমাল রায়কে উদ্ধার করে। এ ঘটনার অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাব-১৩ নীলফামারী সিপিসি-২ এর  কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আব্দুর রাজ্জাক খান।
সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, র‌্যাব নীলফামারী বুধবার রাতে অপহরণকারীদের থানায় হস্তান্তর করে। বৃহস্পতিবার গ্রেফতারদের আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

মন্তব্য করুন


Link copied