আর্কাইভ  সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২ ● ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: ১৪ জেলায় ঝড়ের পূর্বাভাস       ডিমলায় আপডেট ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে জরিমানা ও সিলগালা       রংপুরে ধর্ষক গ্রেফতার       পাঁচ দিনের ছুটির কবলে প্রশাসন       এলপিজি গ্যাসের দাম কমল      

আজ আবার পাক-ভারত উত্তাপ

রবিবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, সকাল ০৭:০৬

ডেস্ক: এই তো সেদিন এশিয়া কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত ও পাকিস্তান। রোমাঞ্চকর সেই মহারণের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের দেখা হয়ে যাচ্ছে ধ্রুপদী দুই জায়ান্টের। লড়াইয়ে মঞ্চ আগেরটাই- দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম। টুর্নামেন্টও সেই একই। পার্থক্য বলতে প্রতিযোগিতার ধাপে। সুপার ফোরের রবিন লিগ রাউন্ডের নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ আবারও মুখোমুখি দুই চিরশত্রু।

আসলে টুর্নামেন্টের ফরম্যাটটাই এমনভাবে তৈরি করা হয়েছিল। যাতে অন্তত দুবার দেখা হয় উপমহাদেশের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর। ভারত গ্রুপপর্বের দুই ম্যাচ জিতে টিকিট কেটেছে সুপার ফোরের। পাকিস্তান অবশ্য ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেটের নাটকীয় হার দিয়ে এশিয়া কাপে স্বপ্নযাত্রা শুরু করেছে। পরের ম্যাচে হংকংকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে বাবর আজমের দল।

ব্যাট হাতে ১৯৩ রানের শক্তিশালী সংগ্রহ তোলার পর খর্বশক্তির হংকংকে ৩৮ রানে অলআউট করেছে পাকিস্তান। ১৫৫ রানের জয়টি টি-টোয়েন্টি সংস্করণে পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় জয়। রানের হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ওটা ছিল সবচেয়ে বড় ব্যবধানের জয়। তবে হংকংয়ের বিরুদ্ধে এতটা দাপুটে জয় পায়নি ভারত। ১৯২ রান তোলার পর রোহিত শর্মার দল জিতেছে ৪০ রানে। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে বিস্ময়কর কিছু না ঘটায় ভারত ও পাকিস্তান দুদলই সুপার ফোরে উতরে গেছে। দুদলের জন্য আজকের ম্যাচটি নতুন শুরুর। কারণ চার দলের মধ্যে সেরা দুদল পাবে ফাইনালের টিকিট। গতবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত অবশ্য অনেকটাই ফেভারিট। পাকিস্তান তাদের সেরা পেসার শাহিন আফ্রিদিকে হারিয়ে আগেই টুর্নামেন্টে হট ফেভারিটের তকমা হারিয়েছে।

আফ্রিদিকে ছাড়াই প্রথম ম্যাচে ভারতের অগ্নিপরীক্ষা নিয়েছে পাকিস্তান। ১৪৭ রানের পুঁজি নিয়ে বাবর অ্যান্ড কোং যেভাবে লড়াই করেছে, সেটির বিশেষণ এক কথায় অসাধারণ। কিন্তু সেই ম্যাচে চোটে পড়েছেন নাসিম শাহ, যা পাকবাহিনীর দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েকগুণ। তবে ভারতের উদ্বেগ বাড়িয়ে দিয়েছেন রবিন্দ্র জাদেজা। হাঁটুর চোট নিয়ে টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে গেছেন এই অফস্পিনিং অলরাউন্ডার।

গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১০ উইকেটে আইসিসি প্রতিযোগিতায় ভারতের বিপক্ষে জয়খরা কাটিয়েছে পাকিস্তান। সেটিরই একটু মধুর প্রতিশোধ নিয়েছে রোহিত অ্যান্ড কোং। তবে একটু গভীরে ভাবলেই দেখা যাবে, প্রতিশোধ নয়, স্রেফ চিরশত্রুদের হারাতে পারার সান্ত¡না হয়ে এসেছে তাদের জয়টা। পাকিস্তানের সামনে এবার এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে হারের বৃত্ত থেকে বের হওয়ার চ্যালেঞ্জ। এ প্রতিযোগিতায় শেষ চার ম্যাচের সবকটিতেই হেরেছে পাকবাহিনী। ফাইনালে যাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে যেতে হলে আজ জয়ের বিকল্প নেই বাবরদের। একই লক্ষ্য ভারতেরও। গতকাল ম্যাচের আগের দিন দুদলই সবটুকু নিংড়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

প্রশ্ন হচ্ছে- দুদলই যদি নিজেদের সেরাটা দেয়, তা হলে কি হবে? ম্যাচের ফল যা-ই হোক না কেন উপভোগ্য একটি ম্যাচই দেখতে পারবেন নিখাদ ক্রিকেটপ্রেমীরা।

মন্তব্য করুন


Link copied