আর্কাইভ  শনিবার ● ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ● ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
আর্কাইভ   শনিবার ● ১০ ডিসেম্বর ২০২২
 width=

 

রংপুরে বহিষ্কার হলেন আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মিলন

রংপুরে বহিষ্কার হলেন আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মিলন

রংপুর সিটি নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ

রংপুর সিটি নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ

রংপুর সিটি নির্বাচনে আ'লীগের মেয়র প্রার্থী ডালিয়ার ইশতেহার ঘোষণা

রংপুর সিটি নির্বাচনে আ'লীগের মেয়র প্রার্থী ডালিয়ার ইশতেহার ঘোষণা

রংপুর সিটি নির্বাচন : ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার

রংপুর সিটি নির্বাচন : ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার

 width=
শিরোনাম: রংপুরে ট্রাকের চাপায় এইচএসসি পরীক্ষার্থী নিহত       বিশ্বকাপ শেষ ব্রাজিলের, স্বপ্নভঙ্গ টাইব্রেকারে       রংপুরে বহিষ্কার হলেন আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মিলন       বেগম রোকেয়া দিবসে নীলফামারীতে ৩৪জন শ্রেষ্ঠ জয়িতা পুরস্কার পেলেন       নীলফামারীতে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত      
 width=

কোটি টাকা চেয়ে সোহানা সাবার লিগ্যাল নোটিশ

মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, দুপুর ০২:২৩

সম্মতি ও লাইসেন্স ছাড়া অনলাইন এবং অফলাইনে বিভিন্ন চ্যানেলে কনটেন্ট সম্প্রচার করায় ক্ষতিপূরণ চেয়ে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা। মোবাইল ফোন কোম্পানি রবি আজিয়াটা লিমিটেড ও মেসার্স ইনসটিচ স্টুডিও কর্তৃপক্ষকে এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশে ওই অনুষ্ঠানের কনটেন্ট ব্যবহার বন্ধ এবং দুই কোম্পানির কাছে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে।

তারপক্ষে রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) এ নোটিশ দেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো.মুজিবুল কামাল। মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) মজিবুল কামাল নিজেই বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

নোটিশে বলা হয়েছে, অভিনেত্রী সোহানা সাবা গত ৪ চার বছর আগে তারকালয় ‘আড্ডা উইথ সোহানা সাবা’ নামে একটি সেলেব্রিটি টকশো নির্মাণ শুরু করেন। যা এম/এস ইনসটিচ স্টুডিও এবং রবি আজিয়াটা লিমিটেড পরবর্তীতে আরো অনেক ডিজিটাল প্লাটফরমে সাবার অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করেছে। এতে জানা অজানা অনেকেই আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছে। তবে টকশোটি সাবার কপিরাইটকৃত এবং যার সার্টিফিকেটগুলোর নম্বর যথাক্রমে সিআরএস ২৭০৪৮ ২৭০৮৫ ২৭০৮৬, ২৭০৮৭ এবং ২৭০৮৮।

এম/এস ইনসটিচ স্টুডিও এবং রবি আজিয়াটা লিমিটেড সোহানা সাবার কোনো সম্মতি ও লাইসেন্স ছাড়া অনুষ্ঠানগুলো অনলাইন এবং অফলাইন বিভিন্ন চ্যানেলে সম্প্রচার করেছে। যা আইন অনুযায়ী কপিরাইট আইন ২০০০ এর (সংশোধিত ২০১০) এর ৭১ ধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

অভিনেত্রী সোহানা সাবা বলেন, গত ৪ বছর ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে ৪২টি পর্ব তৈরি করেছি। এগুলো তারা নিজেদের ইচ্ছা অনুযায়ী আমার অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করে উচ্চ মুনাফা অর্জন করেছে। এটি দেশের আইন অনুযায়ী চুরিরও সামিল। উক্ত কনটেন্টগুলো থেকে  আয় করা টাকা তারা আমাকে বুঝিয়ে দেয়নি। এ বিষয়ে অবগত হলে তাদের কাছে যাওয়ার পরও তারা আমার কথা অগ্রাহ্য করে। তারা আমার পরিশ্রমের অবমূল্যায়ন করে।

মন্তব্য করুন


Link copied