আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২ ● ১৯ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত       পঞ্চগড়ে নৌডুবিতে ইজারাদার ও অদক্ষ মাঝিকে দায়ী করে প্রতিবেদন দাখিল       অপুকে ডিভোর্সের ১৪৮ দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব       সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমল ১৪ টাকা       বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি- রংপুরে জিএম কাদের      

চার বিভাগে তাপপ্রবাহ; সাগরে লঘুচাপ

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, সকাল ০৯:১৩

ডেস্ক: স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত ছাড়াই বর্ষপঞ্জি থেকে বিদায় নিয়েছে বর্ষাকাল। এখন ভাদ্র মাস আসতে না আসতেই ‘তালপাকা’ গরমে জীবন অস্বস্তিকর হয়ে উঠেছে। দাবদাহে পুড়ছে জনজীবন। গত দুই সপ্তাহে সাগরে দুটি লঘুচাপ হলেও স্বস্তির বৃষ্টির দেখা মেলেনি। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর আশপাশের এলাকায় গতকাল আরো একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। 

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, ভাদ্র মাসে গত কয়েক বছর ধরেই তাপমাত্রা একটু একটু করে বাড়ছে। তবে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ স্বাভাবিক থাকলে এই তীব্র গরম অনুভূত হতো না। এবার তুলনামূলক বৃষ্টি কম হওয়ায় প্রচণ্ড তাপ অনুভূত হচ্ছে। সাধারণত হেমন্ত বা ভাদ্র মাসেও বর্ষার রেশ দেখা যায়। কিন্তু এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। বর্ষাকালে বর্ষার উপস্হিতি তেমন দেখা না গেলেও পুরো ঋতু জুড়েই ছিল দাবদাহের বিস্তার। এবার হেমন্ত এসেও সে পারদ কমাতে পারেনি। এখনো দেশের অন্তত পাঁচ জেলা ও এক বিভাগের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তাপপ্রবাহ। তাপমাত্রা ঠেকেছে ৩৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এর ফলে প্রচণ্ড গরম আর লোডশেডিংয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত।

এদিকে অধিদপ্তরের ত্রৈমাসিক আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রতিবেদন বলছে, চলতি মাসে বিচ্ছিন্নভাবে আরো তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। আর সে সময় তাপমাত্রা উঠতে পারে ৩৬ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। যা মাঝারি ধরনের দাবদাহের সমান। এ মাসে অন্যান্য বছরের চেয়ে কম বৃষ্টিপাত হবে। তবে সাগরে একটি মৌসুমি নিম্নচাপের লক্ষণ রয়েছে। পাশাপাশি এ মাসের শেষের দিকে একটি বন্যার পূর্বাভাসও রয়েছে।

আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, বৃষ্টির দেখা পেতে অপেক্ষা করতে হবে আরো দুই-তিন দিন। এদিকে টানা দু্ই দিন ধরে রংপুর বিভাগের সৈয়দপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে বুধবারের মতো গতকাল বৃহস্পতিবারও রাজধানী ঢাকাতে তাপমাত্রা ৩৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বর্তমানে ঢাকা, রাজশাহী, রংপুরের পাঁচ জেলা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল বিভাগে শুষ্ক আবহাওয়া বিরাজ করছে। এসব এলাকায় তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩৩ ডিগ্রি থেকে ৩৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বিরাজ করছে।

আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশীদ জানান, এ সময় দিন ও রাতের তাপমাত্রার পরিবর্তন নেই। যে কারণে দিন এবং রাতেও একই রকম তাপ অনুভূত হচ্ছে। তিনি জানান, সাধারণত গত কয়েক বছর ধরেই তাপমাত্রা একটু একটু করে বাড়ছে। তবে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ স্বাভাবিক থাকলে এই তীব্র গরম অনুভূত হতো না। এবার বর্ষা কম হওয়ায় প্রচণ্ড তাপ অনুভূত হচ্ছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের বুলেটিনে বলা হয়, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর আশপাশের এলাকায় একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। ভারতের রাজস্হান ও এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্হানরত লঘুচাপটি ক্রমশ ঘনীভূত হতে পারে। এদিকে এই লঘুচাপের কারণে দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্হানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থাকতে বলা হয়েছে। এদিকে সারা দেশেই কম বেশি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

এদিকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের আট বিভাগেই ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। সেখানে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায়, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু স্হানে এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্হায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। 

মন্তব্য করুন


Link copied