আর্কাইভ  রবিবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১০ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   রবিবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে ভুয়া চাকুরীদাতা প্রতারক চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার       মরিয়ম মান্নানের মা জীবিত উদ্ধার; ছিলেন স্বেচ্ছায় আত্মগোপনে       ডেপুটি স্পিকারের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ       এনআইডিতে লাগবে ১০ আঙুলের ছাপ       গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিক, সম্পাদক মোজাম্মেল      

ডিমলায় পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ

মঙ্গলবার, ৩ মে ২০২২, দুপুর ১২:৩৯

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী: দীর্ঘদিন থেকে ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব ও শ্লীলতাহানীর করার অভিযোগ উঠেছে নীলফামারীর ডিমলা নাউতরা মডেল স্কুল এন্ড কলেজের (প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান) অধ্যক্ষ মাহামুদুল হাসান নয়নের বিরুদ্ধে। উক্ত অধ্যক্ষের ছোটভাই নাউতরা ইউপি চেয়ারমান আশিক ইমতিয়াজ মোর্শেদ মনি ঘটনাটি মিমাংসা করার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছে। ফলে সোমবার (২ মে) বিকালে ডিমলা থানায় মামলা দিয়েছে ছাত্রীটির অভিভাবক।

জানা যায় সরকারীভাবে গত ২২ এপ্রিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ থাকলেও নাউতরা মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন অযুহাতে তার প্রতিষ্ঠানটি চালু রাখেন। গত ২৮শে এপ্রিল ক্লাশ পরীক্ষায় ৫ম শ্রেনীর ঐ ছাত্রীর পরীক্ষার রুমে গিয়ে অধ্যক্ষ মাহামুদুল হাসান নয়ন ছাত্রীটির হিজাব ঠিক করার নামে শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দেয়। এতে ছাত্রীটি কান্নায় ভেঙ্গে পড়লে পরীক্ষা শেষে অফিসে নিয়ে এসে বিভিন্নভাবে কাউকে না বলার ধমক দেন। ছাত্রীটির বাবা গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চাকুরী করেন। গত শনিবার ছাত্রীটির বাবা বাড়ী আসলে ছাত্রীটি মা বিষয়টি তাকে জানায়। ছাত্রীর বাবা ঘটনাটি ইউপি চেয়ারম্যানকে অবগত করেন। 

ছাত্রীটির চাচা মামুন-অর-রশিদ জানায়, রাতে বিষয়টি নিয়ে আপোষ মিমাংশার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান তার কার্য্যালয়ে নিয়ে যায় কিন্তু রাত ৩টা পর্যন্ত ঘটনাটি সমাধান করতে পারেননি। উল্টো ঘটনাটি ধাপাচাপা দিতে উল্টো ছাত্রীর অভিভাবকদের বিরুদ্ধে এলাকায় মানববন্ধন করায় ও ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনাটি ভিন্নভাবে উপস্থাপনের মাধ্যমে ছাত্রীটির পরিবারকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার পায়তারা করছে।  

নাউতরা ইউপি চেয়ারম্যান ও অধ্যক্ষ নয়নের ছোটভাই আসিক ইমতিয়াজ মোর্শেদ মনি বলেন, রাজনৈতিক কারনে আমার ভাইকে হেয় করা হচ্ছে। আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকলে তারা থানায় মামলা করতে পারে। 

এদিকে ছাত্রীর বাবা লিটন ইসলাম সোমবার বিকালে এ ঘটনায় ডিমলা থানায় মামলা দেন। তিনি বলেন আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষের বিচার চাই।

ডিমলা থানার ওসি লাইছুর রহমান জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

মন্তব্য করুন


Link copied