আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ● ৩ বৈশাখ ১৪৩১
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ১৬ এপ্রিল ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: কুড়িগ্রামে অষ্টমীর স্নান করতে এসে মারা গেলেন পুরোহিত       বাস-পিকআপ সংঘর্ষে ১১ জন নিহত       উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: রংপুরে ৩০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল        ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ডোমার ও ডিমলায় মনোনয়ন জমা দিলেন ৩৫ জন       নীলফামারীতে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নারীকে গণধর্ষন -গ্রেপ্তার ৬      

 width=
 

নির্বাচনী প্রচারণার চা-নাস্তা পরিবেশনের সময় হঠাৎ প্রাণ গেল যুবকের

বুধবার, ১২ জুলাই ২০২৩, বিকাল ০৬:৩৪

স্টাফরিপোর্টার,নীলফামারী॥ নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার গোলনা ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচন হবে আগামী ১৭ জুলাই। তাই ব্যাপকভাবে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। ভোটার ও কর্মী সমর্থকদের নিয়ে চলছে বৈঠক মতবিনিময়। আর তাদের জন্য চা বানানোর সময় প্রাণ হারিয়েছেন আমানুল ইসলাম (৪৫) নামে এক যুবক। মঙ্গলবার(১১ জুলাই) রাতে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার গোলনা ইউনিয়নের গোলনা ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। আমানুল ইসলাম চিড়াভিজা গোলনা নদীর পাড় এলাকার মৃত আব্বাস আলীর ছেলে। 
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১৭ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে গোলনা ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচন। এ নির্বাচনে গোলনা ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্য হোসাইন আহম্মেদ আলমের বাবা মাওলানা মনছুর আলী টেবিলফ্যান প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মাদরাসার অধ্যরে কথা মতো নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকেই সন্ধ্যার পরে মাদরাসার কয়েকটি শ্রেণিকে টেবিল ফ্যান প্রতীকের ভোটার ও কর্মীদের চা-নাস্তা খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয়। সেই চা-নাস্তা বানাতেন আমানুল ইসলাম। মঙ্গলবার রাতে আমানুল ভোটার ও কর্মীদের জন্য বৈদ্যুতিক কেটলি ব্যবহার করে চা বানাচ্ছিলেন। এ সময় হঠাৎ তিনি লুটিয়ে পড়েন। আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। গুঞ্জন ওঠে নির্বাচনী প্রচারণার চা বানাতে গিয়ে বিদ্যুৎ¯পৃষ্ট হয়ে মারা যান আমানুল। 
এ বিষয়ে জানতে গোলনা ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্য হোসাইন আহম্মেদ আলমের মোবাইলফোনে কল করা হলে সাংবাদিক পরিচয় জানাতেই তিনি ফোন কেটে দেন। পরবর্তীতে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। 
জলঢাকা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুল আলম জানান, আমানুলের শরীরে বৈদ্যুতিক শকের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। 

মন্তব্য করুন


 

Link copied