আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১ ● ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১

নীলফামারীর তিস্তায় নিখোঁজ কৃষকের মরদেহ ৫দিন পর উদ্ধার

সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, রাত ১০:৩৮

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী॥ নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা মনছুর আলী(৩৮) নামে এক কৃষক নিখোঁজের ৫দিনের মাথায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সোমবার(২৫ অক্টোবর/২০২১) দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের তিস্তার ডানতীর স্পার্ক বাধ সংলগ্ন এলাকায় লাশটি ভেসে উঠে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। মনছুর আলী উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউনিয়নের কালিগঞ্জ গ্রামের মহম্মদ আলীর ছেলে।
এলাকাবাসী জানায়, গত বুধবার (২০ অক্টোবর) তিস্তা নদীর বন্যার ঢল আসার আগেই মনছুর আলী বাড়ি থেকে বের হয়ে গিয়েছিল। এরপর উজান থেকে হঠাৎ স্মরনকালের উজানের ঢল তিস্তা নদীতে ধেয়ে আসে। সে সময় শতশত বসতভিটা তলিয়ে ও ভেসে যায়। মানুষজন পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয় তিস্তার ডান তীরে। সে সময় কালিগঞ্জের গ্রোয়েন বাধটি বিলিন হয়েছিল। ওই সময় গ্রামের শতশত পরিবার নিজেদের জীবন বাঁচাতেই ব্যস্ত ছিল। মনছুরের স্ত্রী ও দুই ছেলে মেয়েও ডানতীরে আশ্রয় নিয়েছিল। কিন্তু মনছুর আলীর নিখোঁজের বিষয়টি তারা অবগত করতে পারেনি।
মনছুর আলীর স্ত্রী সাহিদা খাতুন অভিযোগ করে জানায়, খোঁজাখুজি করেও স্বামীর সন্ধ্যান না পাওয়ায় রবিবার (২৪ অক্টোবর) ডিমলা থানায় সাধারণ ডায়েরী করি। তার স্বামী তিস্তার বন্যায় নিখোঁজ হয়নি। তার স্বামীকে কেউ হত্যা করে নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।
ডিমলা থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন ওই কৃষকের স্ত্রী সাহিদা খাতুন তার স্বামীর মৃত্যু রহস্যজনক বলে অভিযোগ করলে মরদেহ জেলার মর্গে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরন করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন


Link copied