আর্কাইভ  সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২ ● ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: পাঁচ দিনের ছুটির কবলে প্রশাসন       এলপিজি গ্যাসের দাম কমল       রংপুর মেডিকেলের উপপরিচালক ও সহকারী পরিচালসহ ৩ কর্মকর্তাকে বদলি       ঘোড়াঘাটের সাবেক ইউএনওকে হত্যাচেষ্টার রায় ৪ অক্টোবর       রংপুরে মাসব্যাপী শিল্প ও বাণিজ্য মেলা উদ্বোধন      

উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্যে নীলফামারীতে ভোট চলছে

রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১১:৪৬

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী॥ উৎসাহ উদ্দীপনার ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নীলফামারী পৌরসভা ও জেলার জলঢাকা এবং কিশোরীগঞ্জ উপজেলার ১৯ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে। আজ রবিবার (২৮ নবেম্বর) সকাল ৮টা থেকে নীলফামারী পৌরসভায় ইভিএমে ও ইউনিয়নগুলোতে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট হচ্ছে। ভোটগ্রহন চলবে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত। 
কুয়াশা ও শীতের কারনে সকালে ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিত কম দেখা গেলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভোটারদের উপচে পড়া ভীড় ছিল চোখে পড়ার মতো। বিশেষ করে নারী ভোটারদের দীর্ঘ লাইন ছিল কেন্দ্রে কেন্দ্রে। এ রির্পোট লিখা পর্যন্ত (সকাল ১১টা) কোন গোলযোগ বা অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। ওই সময় পর্যন্ত ইভিএমে নীলফামারী পৌরসভায় শতকরা ২৩ ভাগ ও অন্যান্য ইউনিয়নগুলোর ব্যালটে শতকরা ৪০ ভাগ ভোট কাষ্ট হয়। 
জেলা শহরের পুলিশ লাইন্স স্কুল একাডেমিতে সকাল ১০টায় পুরুষ থেকে নারী ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। 
একটি পৌরসভা ও ১৯টি ইউনিয়নের মোট ভোট কেন্দ্র ১৯৮টি। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ হিসাবে ১৪৬টি কেন্দ্রকে চিহিৃত করা হয়েছে। এসব ভোট কেন্দ্রে আইন শৃংখলা বাহিনীর কড়া নজরদারীর মধ্যে রেখেছে। তবে সকল ভোট কেন্দ্র ও কেন্দ্রের বাহিরে মোতায়েন রয়েছে ১ হাজার ২৩০ জন পুলিশ সদস্য, বিজিবি ৮ প্লাটুন, র‌্যাব ৩ প্লাটুন ও মোবাইল টিম ৫টি। এ ছাড়া আনসার বাহিনীর সদস্য মোতায়েন আছে ৩ হাজার ২৩৮ জন। তিনটি করে ভোট কেন্দ্রে রয়েছে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট। 
৮ম ধাপে পৌরসভা ভোটে নীলফামারী পৌরসভায় মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিন জন। এরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত দেওয়ান কামাল আহমেদ, দলটির বিদ্রোহী প্রার্থী নুরুজ্জামান বুলেট ও জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক জহরুল আলম। এ ছাড়া সংরক্ষিত পদে ২২ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২ নারী সহ ৬০ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। পৌরসভার ১৬টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ১০টি ঝুকিপূর্ন। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৩৫ হাজার ৯৮১। এরমধ্যে নারী ভোটার ১৮ হাজার ৫৬৫ ও পুরুষ ভোটার ১৭ হাজার ৪১৬।
অপরদিকে ৩য় ধাপে জেলার জলঢাকা উপজেলার ১১ ইউনিয়ন ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ চলছে ব্যালটে। জলঢাকা উপজেলার ১১ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫৬ জন, সংরক্ষিত পদে ১৪৫ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৮১ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। এদিকে কিশোরীগঞ্জ উপজেলার ৮ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দুই নারী সহ ৬২ জন, সংরক্ষিত পদে ১২৭ ও সাধারন পদে ৩৫০ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। 
জলঢাকায় ১১ ইউনিয়ন হলো ডাউয়াবাড়ি, গোলমুন্ডা, বালাগ্রাম, গোলনা, ধর্মপাল, শিমুলবাড়ি, মীরগঞ্জ, খুটামারা, কাঠালী, শৈালমারী ও কৈমারী। ওই ১১টি ইউনিয়নের ১০৮টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ২ লাখ ২১ হাজার ৫৪০ ভোটার। ১০৮টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৯৬টি ঝুঁকিপূর্ণ।
কিশোরীগঞ্জ উপজেলার আটটি ইউনিয়ন হলো বড়ভিটা, পুটিমারী, নিতাই, বাহাগিলি, কিশোরীগঞ্জ সদর, রনচন্ডি, গাড়াগ্রাম ও মাগুড়া। এসব ইউনিয়নে ৭৪ ভোট কেন্দ্রে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৪০৯ ভোটার রয়েছে। এরমধ্যে নারী ভোটার ৭০ হাজার ৯২২ ও পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৮ হাজার ৪৮৭। ৭৪টির মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ৪০টি। নীলফামারী জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করে যাচ্ছেন।
জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, শান্তিপূর্ন ভাবে ভোট গ্রহন চলছে। ভোটাররা কেন্দ্রে কেন্দ্রে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট প্রদান করছে।
পুলিশ সুপার মোখলেছুর রহমান বলেন ভোট কেন্দ্রে বা ভোট কেন্দ্রের বাহিরে কেউ গোণ্ডগোল করার চেস্টা করলে তাদের শক্তহাতে প্রতিরোধ করা হবে। তবে এ পর্যন্ত তেম কোন ঘটনা ঘটেনি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সজাগ রয়েছে।
জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, উৎসব মুখোর পরিবেশে ইভিএমে নীলফামারী পৌরসভা ও ব্যালটে জলঢাকা ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলার ১৯টি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট চলছে। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। 

মন্তব্য করুন


Link copied