আর্কাইভ  সোমবার ● ২৭ মে ২০২৪ ● ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
আর্কাইভ   সোমবার ● ২৭ মে ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: রংপুরে মাদরাসার ল্যাবে কেমিক্যালের বয়াম বিস্ফোরিত হয়ে দগ্ধ ২ শিশু       রেমালের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড উপকূল       উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ‘রিমাল’       রংপুরে আলু চাষীদের হিমাগারে অস্বাভাবিক ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে অনশন       তীব্র তাপপ্রবাহে অতিষ্ঠ লালমনিরহাটের মানুষ      

 width=
 

কুখ্যাত ডাকাত টন্না গ্রেপ্তার

শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, বিকাল ০৬:০৯

স্টাফরিপোর্টার,নীলফামারী॥ নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় ডাকাতির ঘটনায় কুখ্যাত ডাকাত নরেশ চন্দ্র দাশ টন্নাকে (৩৩) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার(১ সেপ্টেম্বর) রাতে দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার বেলাইচন্ডি জেলেপাড়া দ্বিতীয় বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার হয়। 
গ্রেপ্তার হওয়া নরেশ চন্দ্র দাশ নীলফামারী জেলা সদরের চাপড়া সরমজানি ইউনিয়নের বেড়াডাঙ্গা গ্রামের জেলেপাড়ার কাল্টু চন্দ্র দাশের ছেলে। 
পুলিশ জানায়, ডোমার উপজেলা শহরের ছোট রাউতা ব্রাক্ষ্মন পাড়ার বিজয় চক্রবর্তীর বাড়িতে চলতি বছরের ১ মে মধ্যরাতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ১০ থেকে ১২জনের ডাকাত দল বাড়ির লোকদের দেশিয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ১ লাখ ৮৮ হাজার টাকা, ২ ভরি স্বর্ণালংকার, ৪ ভরি রুপার অলংকার, কাসার বাসন, ৫টি মুঠোফোনসহ ২লাখ ৯২ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাত দল মুখে কালো রং মেখে ও মাস্ক পরিহিত অবস্থায় ওই বাড়িতে প্রবেশ করে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক বিজয় চক্রবর্তী বাদি হয়ে ঘটনার দিনই থানায় মামলা করেন। মামলার পর টন্নাসহ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।  
ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মাহমুদ উন নবী বলেন, উদ্ধার হওয়া মোটরসাইকেলটি ডাকাতির কাজে ব্যবহার হতো। তার বিরুদ্ধে রংপুর কোতোয়ালী থানার একটি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শনিবার দুপুরে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে গ্রেপ্তার হওয়াদের মধ্যে ৩জন এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। তারা নরেশ চন্দ্র দাশের নেতৃত্বে ডাকাতি করার কথাও বলেছেন। 

মন্তব্য করুন


 

Link copied