আর্কাইভ  রবিবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১০ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   রবিবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
ব্রেকিং নিউজ
শিরোনাম: সংবিধান অনুযায়ই যথা সময়ে নির্বাচন হবে- রংপুরে সমাজকল্যান মন্ত্রী       পঞ্চগড়ে নৌকাডুবিতে ২৪ জনের মৃত্যু       উত্তরবঙ্গে তাপমাত্রা কমার আভাস       অস্কারে যাচ্ছে ‘হাওয়া’       রংপুরে জাপানি নাগরিক হত্যায় ইছাহাকের খালাসের আদেশ স্থগিত      

পঞ্চগড়ে জেলা প্রশাসকের নাম্বার ক্লোন, সাবেক চেয়ারম্যানের কাছে টাকা দাবী!

মঙ্গলবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২২, রাত ০৮:৪০

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলামের অফিসিয়াল ফোন নাম্বার (01713 200 803) ক্লোন করে ২০ হাজার টাকা দাবীর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সাইবার টিমকে নাম্বার ক্লোনের বিষয়টি অবহিত করে অভিযোগ করেছেন জেলা প্রশাসক।

মঙ্গলবার (১ ফেসব্রুয়ারি) সন্ধায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় সকলকে সচেতনসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) পোষ্ট করেছে জেলা প্রশাসন।

জেলা প্রশাসন, পঞ্চগড়-নামের ফেসবুক পেজের পোষ্টটি তুলে ধরা হলো- সকলের অবগতির জন্য একটি জরুরী বার্তা:
জেলা প্রশাসক, পঞ্চগড়ের সরকারি মোবাইল নাম্বারটি (01713 200 803) ক্লোন করে অনেককে এই নাম্বার থেকে ফোন করে টাকা পয়সা চাওয়া সহ অনৈতিক দাবীদাওয়া করা হয়েছে যেটি অত্যন্ত জঘন্য এবং গর্হিত অপরাধ। জেলা প্রশাসক, পঞ্চগড়ের উপরোক্ত মোবাইল নাম্বার হতে কোন প্রকার আর্থিক বা অন্যান্য অনৈতিক দাবিদাওয়া করা হলে সে বিষয়ে কোন প্রকার অর্থ প্রদান না করে ফোন কলটি কেটে দিয়ে জেলা প্রশাসক, পঞ্চগড়কে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

রাতে জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম জানান, সন্ধায় অফিসে কাজ করছিলাম। হঠাৎ (+68801713 200 803) নাম্বার থেকে অফিসিয়াল নাম্বারে (01713 200 803) ফোন আসে। নাম্বারটি দেখে পাশে থাকা একজন অফিসারকে ফোনটি ধরতে দিলে হ্যাকার নিজেই জানান "আপনার নাম্বারটি ক্লোন করা হলো।" এর পর কি কারণে কেন ক্লোন করা হয়েছে এবং নাম্বারটি কার সেটা জানতে চাইলে "পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের নাম্বার" বলে এবং নিজেকে হ্যাকার পরিচয় দিয়ে এড়িয়ে যান। এর পর ফোনটি কেটে দিলে সাইবার টিমকে নাম্বার ক্লোনের বিষয়টি অবহিত করে অভিযোগ করা হয়। তবে এর মাঝে বড়শশি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানকে হ্যাকার ক্লোন নাম্বার (+68801713 200 803) থেকে টেন্ডারের দুইটি কাজের কথা বলে ২০ হাজার টাকা দাবী করে। এর কিছুক্ষুণ পর ওই সাবেক চেয়ারম্যান আবার নিজেই অফিসিয়াল নাম্বারের ফোন দিয়ে বিষয়টি অবহিত করলে হ্যাকারের কাজ বলে তাকে জানানো হয়। এদিকে সন্ধায় ডিসি অফিসের আরেক কর্মকর্তাকে ফোন দেয় ওই হ্যাকার। তবে এ বিষয়ে আমরা সবাইকে সচেতন করছি যাতে কোন টাকা লেনদেন না করে এবং প্রশাসন ও আমাকে বিষয়টি অবহিত করে।

মন্তব্য করুন


Link copied