আর্কাইভ  সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২ ● ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে ধর্ষক গ্রেফতার       পাঁচ দিনের ছুটির কবলে প্রশাসন       এলপিজি গ্যাসের দাম কমল       রংপুর মেডিকেলের উপপরিচালক ও সহকারী পরিচালসহ ৩ কর্মকর্তাকে বদলি       ঘোড়াঘাটের সাবেক ইউএনওকে হত্যাচেষ্টার রায় ৪ অক্টোবর      

রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হল প্রভোস্টের পদত্যাগে শিক্ষার্থীদের মিষ্টি বিতরণ

বুধবার, ১ জুন ২০২২, রাত ১০:৫৫

বেরোবি প্রতিনিধি: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) সেই বিতর্কিত শিক্ষক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট তাবিউর রহমানের পদত্যাগের সংবাদে হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের মাঝে উল্লাস ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু তাই নয়, এমন খবরে বঙ্গবন্ধু হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা একে অপরের মাঝে মিষ্টিও বিতরণ করেন।

বুধবার (১ জুন) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের মূল প্রবেশ ফটকে প্রায় দুইঘন্টা ধরে এ মিষ্টি বিতরণ করেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

এসময় আবাসিক শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমরাতো ধরেই নিয়েছিলাম তাকে (তাবিউর রহমান) আজীবনের জন্য প্রভোস্ট রাখা হবে। কিন্তু গতকাল সদ্য সাবেক প্রভোস্টের পদত্যাগের সংবাদ শুনতে পাই। এমন খবরে শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক উল্লাস ছড়িয়ে পড়ে। নতুন প্রভোস্ট নিয়োগের মাধ্যমে হল প্রভোস্ট তাবিউর রহমানের হলে একনায়কতন্ত্রের অবসান ঘটলো।’

তারা আরো বলেন, ‘দীর্ঘদিন তিনি হলের প্রভোস্ট ছিলেন। হলের সমস্যা সমাধানে তেমন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। হলে দায়সারা কিছু সংস্কার কাজ করে গেছেন। যা মূল বাজেটের অর্ধেক কাজও হয়নি বলে আমরা মনে করি। ভিসি স্যারের কাছে আমাদের অনুরোধ হলের সংস্কার কাজের জন্য যে বাজেট দেয়া হয়েছিলো তার কাজ যথাযথ হয়েছে কিনা বা দুর্নীতি হয়েছে কিনা সেটা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হোক।’

আবাসিক শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, ‘হলের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে অভিযোগ দিলেও কোন পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। হলে লাগাতার চুরি হলেও তার কোন পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি হল প্রভোস্টকে। উল্টো আমরা যারা অভিযোগ দিতাম তাদেরকেই বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করা হতো। নতুন প্রভোস্ট আবাসিক শিক্ষার্থীদের সমস্যার কথা শুনবেন এবং সে সমস্যা সমাধানে কাজ করবেন বলে প্রত্যাশা আমাদের।’

জানা যায়, ২০১৭ সালের ৯ আগস্ট গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তাবিউর রহমান প্রধান সহকারী প্রভোস্ট হিসেবে বঙ্গবন্ধু হলে যোগদান করার পর ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট এর দায়িত্ব পান। ২০২১ সালের ৩০ মে পর্যন্ত তিনি ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ৩১ মে ২০২১ তারিখ থেকে তাঁকে দুই বছরের জন্য পূর্ণাঙ্গ প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এরই মধ্যে তাকে অব্যাহতি দেয়ার গুঞ্জন উঠলে তাড়াহুড়ো করে তিনি দায়িত্ব পাওয়ার ঠিক এক বছরের মাথায় ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করলেন। এরপর গতকাল মঙ্গলবার (৩১ মে) নতুন প্রভোস্ট হিসেবে নিয়োগ পেলেন রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক বিজন মোহন চাকি। 

প্রসঙ্গত, জালিয়াতি করে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার অভিযোগও রয়েছে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান হলের সদ্য সাবেক প্রভোস্ট, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তাবিউর রহমানের বিরুদ্ধে। 

মন্তব্য করুন


Link copied