আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২২ ● ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২২
 width=

 

রংপুর সিটি নির্বাচন: দলীয় কোন্দলে পরাজয়ের আশঙ্কা আ.লীগ প্রার্থীর

রংপুর সিটি নির্বাচন: দলীয় কোন্দলে পরাজয়ের আশঙ্কা আ.লীগ প্রার্থীর

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

 width=
শিরোনাম: বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু       স্কুলে ভর্তির লটারির তারিখ পরির্বতন       আগামী বছর বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় হবে পাকিস্তানের দ্বিগুণ       ব্যায়াম করার সময় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু       রংপুরে নবাগত জেলা প্রশাসক ড. চিত্রলেখা নাজনীনের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়      
 width=

টিকটক করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন মেয়রের ছেলে

বুধবার, ৫ জানুয়ারী ২০২২, রাত ১২:৪৫

ডেস্ক: মোটরসাইকেল চালিয়ে টিকটক করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন জয়পুরহাটের কালাই পৌর মেয়র রাবেয়া সুলতানার ছেলে হৃদয়। এ দুর্ঘটনায় আরও ৬ যুবক আহত হয়েছেন। আহতদের জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে পাঁচবিবি উপজেলার জয়পুরহাট-হিলি সড়কের দরগাপাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

ওসি পলাশ চন্দ্র জানান, হৃদয়সহ কয়েকজন বন্ধু মিলে জয়পুরহাট-হিলি সড়কে মোটরসাইকেল চালিয়ে টিকটক করছিলেন। এসময় তাদের মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হিলির দিক থেকে আসা অপর দুটি মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে কালাই পৌর মেয়র রাজিয়া সুলতানার ছেলে হৃদয় ঘটনাস্থলেই মারা যান। এসময় গুরুতর আহত হন আরও ৬ জন। খবর পেয়ে পাঁচবিবি ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহতদের পরিচয় নিশ্চিত করা গেছে। তারা হলেন - নওগাঁর বদলগাছীর নুর মোহাম্মদের ছেলে আল-আমিন (৪০), একই উপজেলার সবুজ উদ্দিনের ছেলে মাসুদ রানা (৪০), জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার আল-আমিন (৩০), একই উপজেলার মৃত বনু মিয়ার ছেলে নাজমুল (৩০), ছাদেকুল ইসলামের ছেলে রনি (২০), মোজাফফর হোসেনের ছেলে ছাব্বির (৩০), হারুঞ্জা গ্রামের বুলবুলের ছেলে নাজমুল (২২)।

মন্তব্য করুন


Link copied