আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২ ● ১৯ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত       পঞ্চগড়ে নৌডুবিতে ইজারাদার ও অদক্ষ মাঝিকে দায়ী করে প্রতিবেদন দাখিল       অপুকে ডিভোর্সের ১৪৮ দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব       সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমল ১৪ টাকা       বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি- রংপুরে জিএম কাদের      

পঞ্চগড়ে শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ // স্কুলে তালা

রবিবার, ১৩ মার্চ ২০২২, বিকাল ০৭:৩২

ডিজার হোসেন বাদশা: পঞ্চগড় সদর উপজেলায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হরিপদ রায় এর বিরুদ্ধে ৫ম শ্রেনির এক স্কুল ছাত্রীকে য়ৌন হয়রানী করার অভিযোগ ঊঠেছে। এ ঘটনায় ক্ষিত হয়ে স্কুলে তালা দিয়েছে এলাকাবাসী। অন্যদিকে এ ঘটনায় এলাকায় অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

শনিবার (১৩ মার্চ) দুপুরে পঞ্চগড় সদর উপজেলার চাকলাহাট ইউনিয়নের দক্ষিণ ভাটিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়দের অভিযোগে জানা যায়, শনিবার (১২ মার্চ) হরিপদ রায় পঞ্চম শ্রেণির ক্লাশ নেওয়ার সময় এক ছাত্রীর স্পর্শ কাতর জায়গায় হাত দেয়। ওই শিক্ষার্থী বাড়িতে গিয়ে তার বাবা-মা কে জানালে রোববার সকালে ওই ছাত্রীর অবিভাবকসহ স্থানীয়রা স্কুলে যায়। স্কুলে ওই শিক্ষকে না পেয়ে তারা স্কুলের শ্রেণী কক্ষগুলোতে তালা ঝুলিয়ে দেয়। দুপুরে শিক্ষার্থীর অভিভাকসহ স্থানীয়রা বিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করে প্রধান শিক্ষকের কাছে বিচারের দাবি জানায়।

দুপুরে স্থানীয় চেয়ারম্যান বিষয়টি সুষ্ঠ সমাধানের আশ্বাস দিলে বিক্ষেভকারীরা শান্ত হোন। পরবর্তিতে শিক্ষার্থীর বাবা দোষী শিক্ষকের ন্যায় বিচার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

যৌন হয়রানীর শিকার ওই ছাত্রীর বাবা জানান, আমার মেয়ে শনিবার রাতে কান্নাকাটি করে বলে হরিপদ রায় স্যার গণিত ক্লাশের খাতা জমা নেওয়ার সময় স্পর্শ কাতর জায়গায় হাত দেয়। আমি হরিপদ রায়ের শাস্তি চাই। স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রী জানায়, হরিপদ রায় স্যার আমাদের ক্লাশ নেওয়ার সময় আমাদের সাথেও খারাপ আচরণ করে।

আরেক শিক্ষার্থীর অবিভাবক জানায়, রোববার সকালে আমার মেয়ে স্কুলে না যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে সে বলে হরিপদ স্যার আমাদের গায়ে হাত দেয় আমি স্কুলে যাবো না।

এ বিষয়ে ভাটিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয়ন্তী রানী রায় বলেন, অভিভাবকেরা মৌখিক অভিযোগ করেন আমার বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হরিপদ রায় পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। আমি তাদের লিখিতভাবে অভিযোগ দিতে বলি। হরিপদ রায় যদি দোষী হয়ে থাকে তাহলে তার আইনগত ব্যবস্থা হবে।

তবে শিক্ষক হরিপদ রায়ের স্কুলে গিয়ে তাকে পাওয়া যায় নি। এমনকিও মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায় নি।

চাকলাহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম জানান, অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ইতি পূর্বে  আরো অনেক ছাত্রীর সাথে যৌন্য হয়রানী করার অভিযোগ রয়েছে। তবে অভিযুক্ত শিক্ষকের ঘটনা তদন্ত সাপেক্ষে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানান তিনি।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তা মোসলেম উদ্দীন জানান, আমরা শিক্ষক হরিপদ রায়ের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য করুন


Link copied