আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২ ● ১৯ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৪ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত       পঞ্চগড়ে নৌডুবিতে ইজারাদার ও অদক্ষ মাঝিকে দায়ী করে প্রতিবেদন দাখিল       অপুকে ডিভোর্সের ১৪৮ দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব       সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমল ১৪ টাকা       বিএনপির চেয়ে আওয়ামী লীগ এক ডিগ্রী বেশি- রংপুরে জিএম কাদের      

বিশ্ববাজারে ৭ মাসে সর্বনিম্ন জ্বালানি তেলের দাম

বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, বিকাল ০৫:৩২

ডেস্ক: আন্তর্জাতিক বাজারে আবারও কমলো জ্বালানি তেলের দাম। স্থানীয় ‍সময় আজ বুধবার বিশ্ববাজারে তেলের দাম এক ডলারেরও বেশি কমেছে। যা গত সাত মাসের মধ্যে বিশ্ববাজারে এখন পর্যন্ত সর্বনিম্ন দাম।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচারে (এক ধরনের অপরিশোধিত জ্বালানি তেল) ব্যারেল প্রতি কমেছে ১ দশমিক ০৮ মার্কিন ডলার। যা আগের তুলনায় ২ শতাংশ কম। এখন প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ৯১ দশমিক ৭৫ ডলার। গত সাত মাসের মধ্যে এই হার সর্বনিম্ন। এর আগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব বাজারে ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচারের দাম ছিল ব্যারেল প্রতি ৯১ দশমিক ২০।   

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুডের প্রতি ব্যারেল দাম ১ দশমিক ২০ ডলার কমে ৮৫ দশমিক ৬৮ মার্কিন ডলারে নেমেছে। ২৬ জানুয়ারির পর এটি সর্বনিম্ন ।

অর্গানাইজেশন অব দ্য পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজ (ওপেক) এবং তাদের মিত্ররা গত অক্টোবরে ঘোষণা দেয় প্রতিদিন এক লাখ ব্যারেল কম তেল উৎপাদনের। এরপরই বিশ্ববাজারে তেলের দাম বেড়ে যায়।

ফরেন এক্সচেঞ্জ কোম্পানি ওএনডিএ’র জ্যেষ্ঠ বাজার বিশ্লেষক ও ট্রেডিং অ্যাডভান্টেজের সাবেক চিফ কারেন্সি স্ট্র্যাটেজিস্ট এডওয়ার্ড মোয়া বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের মধ্যে ওপেক প্লাসের উৎপাদন কমানোর বিষয়টিকে ম্লান করা কঠিন ছিল না। যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাশিত কিছু ডেটা পরিষেবা থাকা সত্ত্বেও বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি মোটেই ভালো দেখাচ্ছে না। এটি অপরিশোধিত তেলের দামের জন্য সমস্যা।’

ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস প্রতিষ্ঠান সিএমসি মার্কেটের বিশ্লেষক টিনা টেং বলেন, ‘একটি শক্তিশালী মার্কিন ডলার (সুদ), আক্রমণাত্মক বৃদ্ধি, বন্ড বেড়ে যাওয়া, এবং চীনের প্রবৃদ্ধিতে মন্দা তেলের দামের উপর চাপ সৃষ্টি করেছে।’

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হলে মন্দাভাব শুরু হয় জ্বালানি তেলের বাজারে। জ্বালানি তেলের আন্তর্জাতিক বাজার পর্যবেক্ষণকারী বিভিন্ন সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, গত আগস্ট মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত গত ছয় মাসে বিশ্ব বাজারে ব্রেন্ট ক্রুড তেলের দাম কমেছে ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ ও ডব্লিউটিআইয়ের দাম কমেছে ৯ দশমিক ৭ শতাংশ।

চীনে করোনা নীতিমালার কারণে চেংডুর মতো শহরগুলো লকডাউনের আওতায় রয়েছে। সেখানে ২১ দশমিক ২ মিলিয়ন মানুষ বাস করে। যা বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ভোক্তার গতিশীলতা এবং এটিও তেলের চাহিদা কমিয়ে দিয়েছে।

মন্তব্য করুন


Link copied