আর্কাইভ  শনিবার ● ১৩ জুলাই ২০২৪ ● ২৯ আষাঢ় ১৪৩১
আর্কাইভ   শনিবার ● ১৩ জুলাই ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: সারা দেশের ৫০ শয্যা হাসপাতালগুলো ক্রমান্বয়ে একশ শয্যায় উন্নীত করা হবে- স্বাস্থ্য মন্ত্রী       তিস্তা কর্তৃপক্ষ গঠন করে নিজস্ব অর্থায়নে মহাপ্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি       রোববার কোটা আন্দোলনকারীরা সড়কে নামলেই ‘কঠোর ব্যবস্থা’       রংপুরে ৭২ কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেফতার       পঞ্চগড়ে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নানী- নাতনির মৃত্যু      

 width=
 

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের সিরিজ হারাল বাংলাদেশ

রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩, বিকাল ০৬:৫২

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয়টিতে ইংল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারাল বাংলাদেশ। এর ফলে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করল টাইগাররা। পাশাপাশি যে কোনো ফরম্যাটে প্রথমবারের মতো ইংলিশদের সিরিজ হারের স্বাদ দিয়ে ইতিহাস গড়লেন সাকিব আল হাসানরা।

আজ রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলতে নামে দুদল। ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় মাঠে গড়ায়। যেখানে প্রথমে ব্যাট করতে নামা ইংলিশদের শুরু থেকেই চেপে ধরে বাংলাদেশি বোলাররা। বিশেষ করে মেহেদী হাসান মিরাজের অসাধারণ ঘূর্ণিতে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১১৭ রান করে ইংল্যান্ড। ১১৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ও ৭ বল বাকি থাকতে ১২০ রান করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

ইংলিশদের দেওয়া ১১৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পাওয়ার প্লেতে দুই ওপেনারকে হারায় বাংলাদেশ। তৃতীয় ওভারে স্যাম কারানের বলে ব্যক্তিগত ৯ রানে তুলে মারতে গিয়ে ক্যাচ হন লিটন দাস। আর ষষ্ঠ ওভারে জোফরা আর্চারের বলে মঈন আলীর ক্যাচ হন রনি তালুকদার (৯)।

ব্যক্তিগত ১৭ রানে রেহান আহমেদের শিকার হন তৌহিদ হৃদয়। তবে ব্যাটিং অর্ডারে উন্নতি পাওয়া মেহেদী হাসান মিরাজ দুই ছক্কায় ১৬ বলে ২০ রান করেন। আর্চারের বলে বিদায় নেন তিনি। কিন্তু মঈন আলীর বলে তুলে মারতে গিয়ে শূন্য রানে ফেরেন সাকিব। শেষ দিকে আফিফ আর্চারের তৃতীয় শিকার হলে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত ২ রানে সরাসরি বোল্ড হন তিনি।

কিন্তু এক পাশে আগলে রেখে ব্যাট করে যান নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনি ৪৭ বলে ৩টি চারে ৪৬ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জেতান। আর শেষ দিকে তাসকিন আহমেদ ৩ বলে ২টি চারে ৮ রানে অপরাজিত থেকে বড় ভূমিকা রাখেন।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট পান আর্চার। এছাড়া কারান, মঈন ও রেহান একটি করে উইকেট দখল করেন।

টস হেরে এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নামা ইংলিশ ওপেনার ডেভিড মালানকে শুরুতে ফেরান তাসকিন আহমেদ। তৃতীয় ওভারে ব্যক্তিগত ৫ রানে থাকা মালানকে হাসান মাহমুদের ক্যাচে পরিণত করেন তাসকিন।

দলীয় ৫০ থেকে ৫৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারায় ইংলিশরা। ম্যাচের সপ্তম ওভারে আরেক ওপেনার ফিল সল্টকে বিদায় করেন সাকিব আল হাসান। ২৫ রানে থাকা এই ব্যাটারকে নিজের ক্যাচেই মাঠ ছাড়া করান টাইগার অধিনায়ক। এরপর উইকেটে আসা সফরকারী অধিনায়ক জস বাটলারকে ব্যক্তিগত ৪ রানে বোল্ড করেন হাসান মাহমুদ। পরের ওভারে ১৫ রানে থাকা মঈন আলীকে বিদায় করেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

মিরাজের ঘূর্ণিতে বিপাকে পড়ে সফরকারীরা। স্যাম কারান (১২) ও ক্রিস ওকসকে শূন্য রানে ফেরান এই স্পিনার। পরে ক্রিস জর্ডানকেও (৩) বিদায় করেন তিনি।

মোস্তাফিজুর রহমানে শেষ ওভারে ইংল্যান্ড ৩ উইকেট হারায়। দলটির হয়ে সর্বোচ্চ ২৮ রান করা বেন ডাকেটকে নাজমুল হোসেন শান্তর ক্যাচ বানান কাটার মাস্টার। পরে রেহান আহমেদ ও জোফরা আর্চার রান আউট হন।

বাংলাদেশ বোলার মিরাজ ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান দিয়ে ৪টি উইকেট দখল করেন। একটি করে উইকেট পান তাসকিন, মোস্তাফিজ, সাকিব ও হাসান।

মন্তব্য করুন


 

Link copied