আর্কাইভ  রবিবার ● ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ● ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০
আর্কাইভ   রবিবার ● ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: তিস্তা ইউনিভার্সিটিতে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত       সংরক্ষিত আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলেন ৫০ নারী       দিনাজপুরের সাবেক এমপি আখতারুজ্জামান জেল-হাজতে       সরকারি মাল দরিয়ায় ঢালবেন না: প্রধানমন্ত্রী       জাপা গৃহপালিত রাজনৈতিক দল, স্বীকার করলেন কাদের      

বড় বোনকে জমি লিখে দেওয়ায় বাবাকে কুপিয়ে হত্যা ॥ ছেলে গ্রেপ্তার

বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩, রাত ০৮:৪৪

স্টাফরিপোর্টার,নীলফামারী॥ বড় বোনকে জমির অংশ বেশি লিখে দেওয়ায় রাগে বাবাকে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ছেলে নুর ইসলামকে(৪০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার(২৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার ডাউয়াবাড়ী ইউনিয়নের নেকবক্ত এলাকার বুড়িতিস্তার চরের এক আত্মীয় বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে ওইদিন সকালে ডিমলা উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের উত্তর সোনাখুলি মিলন পাড়া গ্রামে বাবা আব্দুল আজিজকে(৭০) কোদাল দিয়ে কুপিয়ে ঘটনাস্থলে আহত করে পালিয়ে যান ছেলে নুর ইসলাম। 
বুধবার(২৯ নভেম্বর) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ডিমলা থানার ওসি দেবাশীষ রায়। 
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহত আব্দুল আজিজের তিন ছেলে ও তিন মেয়ে। এক বছর আগে আজিজ তার বড় মেয়ে আরজিনা বেগমকে ১৬ শতাংশ জমি লিখে দেন। এরপর থেকে তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এঅবস্থায় মঙ্গলবার সকালে আজিজ বাড়ির সামনের ভুট্টা রোপণের সময় জমির সীমানা নিয়ে ছেলে নুর ইসলামের সঙ্গে বাগবিতন্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে রাগ সামলে রাখতে না পেরে পাশে থাকা কোদাল দিয়ে কুপিয়ে আজিজকে ঘটনাস্থলে আহত করে পালিয়ে যান ছেলে নুর। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান তিনি। 
ঘটনার পর থেকে নুর ইসলামকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান শুরু করে পুলিশ। এক পর্যায়ে তথ্য প্রযুক্তির সহযোগীতায় মোবাইল ট্যাকিং এর মাধ্যমে জলঢাকা থানার ওসি মুক্তারুল আলমের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত এলাকার বুড়িতিস্তা চরের এক আত্মীয় বাড়ি থেকে নুর ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। 
ডিমলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেবাশীষ রায় বলেন, এ ঘটনায় নিহত আজিজের স্ত্রী বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মন্তব্য করুন


 

Link copied