আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১ ● ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১

মহামারীতে খুন-ডাকাতি কম, বেড়েছে ধর্ষণ

মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর ২০২১, সকাল ০৯:১১

ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যেও গত অর্থবছরে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের ঘটনা প্রায় ১৮ শতাংশ বেড়েছে বলে সরকারের পরিসংখ্যানে তুলে ধরা হয়েছে। এই সময়ে হত্যাকাণ্ড ও ডাকাতির ঘটনা সামান্য কমেছে; তবে রাহাজানির ঘটনা আগের চেয়ে সামান্য বেড়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সামনে এসব তথ্য তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের মোট ঘটনা ছিল ২১ হাজার ৭৮৯টি, যা তার আগের অর্থবছরে ছিল ১৮ হাজার ৫০২টি। সে হিসেবে মহামারীতে এক বছরে নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনা বেড়েছে ১৭ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

করোনাভাইরাস মহামারীর এই সময়ে বিশ্বে সহিংসতার শিকার হয়ে আগের তুলনায় পাঁচগুণ বেশি নারী হেল্পলাইনে ফোন করেছেন বলে ইউএন উইমেনের এক পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে।

গত বছর মার্চে বাংলাদেশে মহামারী শুরুর পর থেকে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বাড়ার বিষয়ে অধিকারকর্মীরা ধারণা দিলেও পরিসংখ্যান ছিল না। মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দেওয়া তথ্যে সেই ধারণার প্রতিফলন ঘটেছে।
মন্ত্রিসভার বৈঠকে উত্থাপিত মন্ত্রণালয় ও বিভাগসমূহের ২০২০-২১ অর্থবছরের কার্যাবলি সম্পর্কিত বার্ষিক প্রতিবেদনের সূত্র ধরে তিনি বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে ৭ হাজার ২২২টি, যা আগের অর্থবছরে ছিল ৫ হাজার ৮৪২টি। অন্যদিকে নারী নির্যাতনের ঘটনা ২০১৯-২০ অর্থবছরের ১২ হাজার ৬৬০টি থেকে বেড়ে গত অর্থবছরে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৫৬৭টি।

২০২০-২১ অর্থবছরে খুন রাহাজানিসহ বিভিন্ন অপরাধের আগের বছরের মতো থাকার চিত্রই এসেছে আনোয়ারুল ইসলামের দেওয়া তথ্যে।

তিনি বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরে ৩২১টি ডাকাতি ও ১ হাজার ৪৮টি রাহাজানির ঘটনা ঘটে; যা আগের বছরে ছিল যথাক্রমে ৩৩৬ ও ৯১৯টি। ২০১৯-২০ বছরে ৩ হাজার ৪৮৫টি খুনের বিপরীতে মহামারীর বছরে প্রাণ ঝরে ৩ হাজার ৪৫৮ জনের।

মন্তব্য করুন


Link copied