আর্কাইভ  সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২ ● ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   সোমবার ● ৩ অক্টোবর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রংপুরে ধর্ষক গ্রেফতার       পাঁচ দিনের ছুটির কবলে প্রশাসন       এলপিজি গ্যাসের দাম কমল       রংপুর মেডিকেলের উপপরিচালক ও সহকারী পরিচালসহ ৩ কর্মকর্তাকে বদলি       ঘোড়াঘাটের সাবেক ইউএনওকে হত্যাচেষ্টার রায় ৪ অক্টোবর      

আসছে কালবৈশাখী ঝড়

সোমবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২, রাত ০৯:৪৯

সেন্ট্রাল ডেস্ক: সারাদেশে কমতে শুরু করেছে শীতের আমেজ। বাড়তে শুরু করছে তাপমাত্রা। পাশাপাশি বেড়েছে ঝড়-বৃষ্টির প্রভাব। আগামী মার্চ মাসে ২-৩ দিন তীব্র কালবৈশাখী বা বজ্রঝড় হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করে। এই তাপমাত্রা পরিবর্তনের সময়ে আবহাওয়ার বেশ কিছু পরিবর্তন ঘটে। এর মধ্যে শীতের উত্তরের হাওয়া কমে আসে। পশ্চিমা লঘুচাপের আধিক্য থাকে। সব কিছুর সংমিশ্রণের কারণে এই কালবৈশাখী ঝড় বা বজ্রঝড়ের সৃষ্টি হয়। মার্চ এবং এপ্রিল—এই দুই মাসে আমরা বেশ কয়েকটি তীব্র কালবৈশাখী ঝড় পাব। এছাড়া ছোট ছোট আরও কিছু ঝড় হতে পারে।
 
আবহাওয়া অধিদফতরের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়, মার্চ মাসে সামগ্রিকভাবে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। এ মাসে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে ১ থেকে ২ দিন মাঝারি বা তীব্র কালবৈশাখী বা বজ্রঝড় এবং অন্য এলাকায় ২-৩ দিন হালকা বা মাঝারি কালবৈশাখী বা বজ্রঝড় হতে পারে। মার্চ মাসে দিনের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে বেড়ে প্রায় ৩৪-৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত হতে পারে। তবে দেশের পশ্চিমাঞ্চলের তাপমাত্রা আরও কিছুটা কম হতে পারে।
 
আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, ফেব্রুয়ারির শেষ থেকেই আমরা এবার কালবৈশাখী ঝড় পেলাম। তবে সাধারণত মার্চ মাস থেকেই শুরু হয় কালবৈশাখী। আগামী মাসে বেশ কয়েকটি ঝড়ের পূর্বাভাস আছে। দেশের বেশ কিছু অঞ্চলে বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টিও হতে পারে।
 
এদিকে সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে, তবে রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ভোরের দিকে দেশের নদী-অববাহিকায় কোথাও কোথাও বিছিন্নাভাবে হালকা কুয়াশা পড়তে পারে।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থায় করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।
 
এছাড়া আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হতে পারে এবং আগামী ৫ দিনের আবহাওয়ায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা ক্রমশ বৃদ্ধি পেতে পারে।
 
সোমবার বিকেল থেকে ঢাকায় পূর্ব অথবা উত্তর-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৬ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হয়। বিকেলে ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৫২ শতাংশ।
 
ঢাকায় মঙ্গলবার (১ মার্চ) সূর্যাস্ত যাবে সন্ধ্যা ৬টা ০১ মিনিটে এবং মঙ্গলবার সূর্যোদয় হবে ভোর ৬টা ২১ মিনিটে।
 
এদিকে, আজ দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেতুলিয়ায় ১৪ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ঢাকায় ১৯ দশমিক ৮, ময়মনসিংহে  ১৮ দশমিক ৩, চট্টগ্রামে ১৮ দশমিক ৭, সিলেটে ১৮ দশমিক ২, রাজশাহীতে ১৫ দশমিক ৫, রংপুরে ১৬ দশমিক ৫, খুলনায় ১৮ দশমিক ৪ এবং বরিশালে ১৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মন্তব্য করুন


Link copied