আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২২ ● ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২২
 width=

 

রংপুর সিটি নির্বাচন: দলীয় কোন্দলে পরাজয়ের আশঙ্কা আ.লীগ প্রার্থীর

রংপুর সিটি নির্বাচন: দলীয় কোন্দলে পরাজয়ের আশঙ্কা আ.লীগ প্রার্থীর

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটিতে ইভিএম সম্পর্কে জানেন না ৯০ শতাংশ ভোটার

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে ৩৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

রংপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর সঙ্গে জেলা আ'লীগের মতবিনিময়

 width=
শিরোনাম: বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু       স্কুলে ভর্তির লটারির তারিখ পরির্বতন       আগামী বছর বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় হবে পাকিস্তানের দ্বিগুণ       ব্যায়াম করার সময় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু       রংপুরে নবাগত জেলা প্রশাসক ড. চিত্রলেখা নাজনীনের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়      
 width=

নীলফামারীতে নিয়োগ পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে মা ও মেয়ে সহ ৫ জন কারাগারে

শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর ২০২২, বিকাল ০৬:১১

স্টাফ রিপোর্টার,নীলফামারী॥ নীলফামারীতে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী নিয়োগ পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে পাঁচজনকে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক। শুক্রবার(১৮ নভেম্বর) জেলা শহরের বিভিন্ন কেন্দ্রে ওই নিয়োগ পরীক্ষা হয়। দন্ড প্রাপ্তদের মধ্যে নীলফামারী সরকারি কলেজ কেন্দ্রে তিনজন এবং রাবেয়া বালিকা বিদ্যা নিকেতন কেন্দ্রে দুইজনকে সাজা দেওয়া হয়।
দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জলঢাকা উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের গোপালঝাড় গ্রামের রবিন মোস্তাফিজের মেয়ে আফিকা আফরোজ (২৬), একই গ্রামের ওসমান গনির মেয়ে রনজিনা আকতার (২৭), একই উপজেলার মীরগঞ্জ ইউনিয়নের পাঠানপাড়া গ্রামের মো. আজিজুল খানের মেয়ে আদুরী খানম (২২), নীলফামারী সদর উপজেলার চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নের যাদুরহাট গ্রামের হাবিবুর রহমানের স্ত্রী রাশেদা বেগম (৩০) ও রাশেদার মেয়ে সিমলা আকতার (১৭)।
ওই পাঁচজনের মধ্যে আফিকা আফরোজকে দুই দিনের এবং অপর চারজনকে তিনদিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।
অভিযুক্তদের মধ্যে সিমলা আকতার তার মায়ের হয়ে পরীক্ষায় অংশ নেয়ার অপরাধে নীলফামারী রাবেয়া বালিকা বিদ্যানিকেতন কেন্দ্রে আটক হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার(ভুমি) ইবনুল আবেদীন মা ও মেয়েকে তিনদিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।
দন্ডপ্রাপ্ত অপর তিনজন নীলফামারী সরকারি কলেজ কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী ছিলেন। পরীক্ষা কেন্দ্রে সঙ্গে মুঠোফোন রাখার অপরাধে তাদের তিনজনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমিন নাহার।
পরিবার পরিকল্পনা দফতর সুত্র মতে, নীলফামারী সরকারি কলেজ কেন্দ্রে নীলফামারী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমিন নাহার ও রাবেয়া বালিকা বিদ্যা নিকেতন কেন্দ্রে নীলফামারী সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার(ভুমি) ইবনুল আবেদীন দায়িত্ব পালন করেন। 
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমিন নাহার জানান, সরকারি কলেজ কেন্দ্রে জলঢাকার তিন পরীক্ষার্থী মুঠোফোনে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে বাহিরে পাঠানোর অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে তাদের সাজা প্রদান করা হয়।’ 
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুর রউপ বলেন, ‘দন্ডিতদের দুপুরে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।’
 জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. মোজাম্মেল হক বলেন, ‘নীলফামারীতে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির ৭৬টি পদের বিপরিতে দরখাস্ত আহবান করা হয়। ৫ হাজার ৩৮১জন আবেদন করলেও শুক্রবার অনুষ্ঠিত নিয়োগ পরীক্ষায় ২ হাজার ১০১জন অংশগ্রহণ করেন।’

মন্তব্য করুন


Link copied