আর্কাইভ  শুক্রবার ● ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ● ২১ মাঘ ১৪২৯
আর্কাইভ   শুক্রবার ● ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
 width=
 width=
শিরোনাম: চোর সন্দেহে দুইজনকে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৪       স্থানীয় বখাটেদের সঙ্গে বেরোবি শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ: আহত ৪       ঘোড়ার গাড়িতে রাজকীয় বিদায়       এলপি গ্যাসের দাম ২৬৬ টাকা বাড়ল       প্রধানমন্ত্রী আমার উপর অত্যন্ত খুশী- রংপুর সিটি মেয়র      
 width=

বন্যা ঝুঁকিতে আরও ৬ জেলা

মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২, সকাল ০৮:৩২

ডেস্ক: দেশে এখন পর্যন্ত বন্যায় আক্রান্ত জেলা ১৫টি। আরও ছয়টি জেলা বন্যার ঝুঁকিতে রয়েছে। পানি যত নিচের দিকে নামবে, ততই বাড়বে বন্যায় আক্রান্ত জেলার সংখ্যা। এই তালিকায় আছে মানিকগঞ্জ, পাবনা, রাজবাড়ী, ফরিদপুর, মাদারীপুর ও চাঁদপুর। এসব জেলার ৯টি নদীর ১৯টি পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র (এফএফডব্লিউসি) গতকাল সোমবার এসব তথ্য জানিয়েছে। এদিকে ধীরে ধীরে সিলেট অঞ্চলে বন্যার পানি কমছে। ফলে পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে নদনদীর পানি বাড়তে থাকায় দেশের উত্তরাঞ্চলে পরিস্থিতির অবনতি ও নতুন নতুন এলাকায় বন্যা দেখা দিতে পারে। আর চট্টগ্রাম অঞ্চলে অস্বাভাবিক হারে বৃষ্টি বেড়ে যাওয়ায় পাহাড়ধসের ঝুঁকি বাড়বে।

PMBA

জানা গেছে, ভারতের মেঘালয়ের চেরাপুঞ্জি ও সিলেটে বৃষ্টি কমতে শুরু করেছে। ফলে সিলেট, সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোনায় বন্যার পানি হ্রাস পাচ্ছে। তবে ওই পানি হবিগঞ্জ দিয়ে নামতে শুরু করায় সেখানকার নদনদীতে পানি বাড়ছে। সেখানে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম ও পার্বত্য জেলাগুলোতে অস্বাভাবিক হারে বৃষ্টি বেড়েছে। ফলে সেখানে পাহাড়ধস শুরু হয়েছে। সামনের কয়েক দিন ওই ঝুঁকি আরও বাড়তে পারে।

এফএফডব্লিউসির নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, বাংলাদেশের উজানে মেঘালয়ে বৃষ্টি কমলেও আসাম ও ত্রিপুরায় বৃষ্টি চলছে। ফলে উত্তরাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে। আরও সপ্তাহখানেক উত্তর-মধ্যাঞ্চলে বৃষ্টি চলতে পারে। দেশের উত্তরাঞ্চলের প্রধান নদী ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার পানি বাড়তে শুরু করেছে। লালমনিরহাট, নীলফামারী, রংপুর, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল, কুড়িগ্রাম, রংপুর ও গাইবান্ধায় বন্যার পানি বাড়ছে। আজ মঙ্গলবারের মধ্যে তিস্তার পানিও বাড়তে পারে। এ ছাড়া চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বান্দরবান ও রাঙামাটির নদনদীর পানি বাড়তে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশের পূর্বাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি জুনজুড়েই বিরাজমান থাকতে পারে। এ ছাড়া মধ্যাঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়ছে বন্যা।

অবশ্য আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বলছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দেশের উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল এবং এর উজানে ভারতের মেঘালয়, আসাম, ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গের হিমালয় পাদদেশীয় অঞ্চলে ভারি বৃষ্টি হতে পারে। ফলে পদ্মা, ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, ধরলা, দুধকুমারসহ আশপাশের নদনদীর পানি বাড়তে পারে। তবে অন্য এলাকাগুলোর তুলনায় মেঘালয়ে ভারি বৃষ্টিপাত কমে আসতে পারে।

মন্তব্য করুন


Link copied